আকর্ষণীয় করুন ঠোঁটের সাজ

আকর্ষণীয় করুন ঠোঁটের সাজ
আকর্ষণীয় করুন ঠোঁটের সাজ

গায়ের রঙের ওপর নির্ভর করে ব্যবহার করুন লিপস্টিক। দিনের বেলা হালকা পিংক, ব্রাউন বা ন্যাচারাল যেকোনো শেড ব্যবহার করুন আর রাতে লালচে মেরুন, কফি, পার্পল শেড ব্যবহার করুন। গরমে কড়া লাল লিপস্টিক ব্যবহার না করাই ভালো।

রং চাপা হলেঃ
মেরুন, ওয়াইন, রেড, ব্রাউন, কফি_এসব রং ভালো মানাবে।

রং উজ্জ্বল হলেঃ
পিংক, বেগুনি ও হালকা বাদামির যেকোনো শেড বেছে নিন।

ঠোঁটের মাপে লিপস্টিকঃ

পাতলা ঠোঁটঃ
ঠোঁট ভরাট দেখাতে ঠোঁটের স্বাভাবিক আউটলাইন থেকে একটু বাইরে লাইন টানুন। এবার নিউট্রাল শেডের লিপস্টিক ব্যবহার করুন। ঠোঁট দেখতে ভরাট লাগবে।

পুরু ঠোঁটঃ
ফাউন্ডেশন ও কনসিলারের সাহায্যে ঠোঁটের ন্যাচারাল আউটলাইন ব্লেন্ড করুন। মোটা ঠোঁটে গ্লসি লিপস্টিক ব্যবহার না করে ম্যাট লিপস্টিক ব্যবহার করুন।

অসমান ঠোঁটঃ
ওপরের ঠোঁট নিচের ঠোঁটের চেয়ে পাতলা হলে ওপরের দিকের আউটলাইন একটু বাইরে থেকে টানুন। ওপরের ঠোঁটের ভি শেপ জায়গায় একটু গাঢ় করে লাইন টানুন। এবার গাঢ় শেডের ম্যাট লিপস্টিক ব্যবহার করুন।

কেনার আগেঃ
লিপস্টিক কেনার আগে হাতের তালুর উল্টো পিঠে একটু লাগিয়ে দেখুন আপনার ত্বকের সঙ্গে মিলছে কি না। ত্বকের কাছাকাছি শেড কেনার চেষ্টা করুন।

ঠোঁটের যত্নে কয়েকটি টিপসঃ
# মুখে খুব গাঢ় মেক-আপ থাকলে সব সময় হালকা শেডের লিপস্টিক দিন।
# ঠোঁটের রং ঠিক রাখতে রাতে শোয়ার আগে ঠোঁটে বিটের রস লাগান।
# দাঁত দিয়ে ঠোঁট কামড়াবেন না। এতে ক্ষতি হয়।
# তুলার প্যাড দিয়ে আলতো করে লিপস্টিক তুলে ভ্যাসলিন লাগান।
# খুব বেশি ড্রাই ঠোঁটে ম্যাট লিপস্টিক না লাগানোই ভালো।

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *