আপনার চুলকে সুস্থ ও সুন্দর রাখবে ৭টি “ঘরোয়া” শ্যাম্পু


একের পর এক ব্র্যান্ডের শ্যাম্পু ব্যবহার করছেন কিন্তু কোনটিতেই ফল পাচ্ছেন না? জেনে রাখুন একদম ঘরোয়া উপায়ে এই ৭টি শ্যাম্পু তৈরির উপায়। রাসায়নিক শ্যাম্পু ব্যবহারে আপনার যতো ক্ষতি হচ্ছে, এসব প্রাকৃতিক শ্যাম্পু ব্যবহারে কমে যাবে সেই ক্ষতি। সুস্থ ঝলমলে চুল হয়ে উঠবে ভেতর থেকে সুন্দর।

১) বেকিং সোডা শ্যাম্পু :
এক টেবিল চামচ সোডার সাথে এক কাপ পানি মিশিয়ে সাধারণ শ্যাম্পুর মতো ব্যবহার করুন। চুলের ময়লা কমানো এবং ড্যানড্রাফ দূর করতে এটি কাজে লাগবে। তবে এই শ্যাম্পু কিছুদিন পর পর ব্যবহার করাই ভালো।

২) লেবু ও শসার শ্যাম্পু :
যাদের চুল শুষ্ক তাদের জন্য এই শ্যাম্পু খুবই কাজে আসবে। একটি লেবু ও একটি শসার খোসা ছিলে নিন। এগুলো ব্লেন্ড ক্লরে নিন ভালোমত। এরপর সাধারণ শ্যাম্পুর মতো ব্যবহার করুন। চুলে কিছু লেবুর অংশ লেগে থাকতে পারে। চুল শুকিয়ে যাবার পর চিরুনি চালিয়ে এগুলো পরিষ্কার করে ফেলুন।

৩) কর্ন স্টার্চ শ্যাম্পু :
এই শ্যাম্পু চুল ঘন করতে সাহায্য করবে। এক কাপ পানিতে এক টেবিল চামচ বেকিং সোডা গুলে নিন। এরপর এতে কর্ন স্টার্চ বা কর্ন ফ্লাওয়ার যোগ করুন যতক্ষণ না তা শ্যাম্পুর মতো ঘন হয়। এরপর সাধারণ শ্যাম্পুর মতো ব্যবহার করুন।

৪) অ্যাপল সিডার শ্যাম্পু :
এক কাপ বেবি শ্যাম্পুর সাথে যোগ করুন দুই টেবিল চামচ অ্যাপল সিডার ভিনেগার। এর সাথে সিকি কাপ পানি যোগ করুন। যোগ করতে পারেন এক টেবিল চামচ টি ট্রি অয়েল। ব্যবহার করুন সাধারণ শ্যাম্পুর মতো। শুধু শ্যাম্পুই নয়, এটি কন্ডিশনারেরও কাজ করবে।

৫) নারিকেল দুধ শ্যাম্পু :
চুলের জন্য নারিকেলের দুধ খুবই ভালো। পৌনে এক কাপ বেবি শ্যাম্পুর সাথে যোগ করুন সিকি কাপ নারিকেল দুধ। এর সাথে যোগ করতে পারেন এক টেবিল চামচ আমন্ড অয়েল এবং দশ ফোঁটা আপনার প্রিয় যে কোন এসেনশিয়াল অয়েল। ব্যবহার করুন সাধারণ শ্যাম্পুর মতো।

৬) তেলের শ্যাম্পু :
কী, নাম শুনেই খটকা লাগছে? কোথায় তেল আর কোথায় শ্যাম্পু! যাদের মাথার ত্বক শুষ্ক তাদের জন্য কিন্তু এটা দারুণ উপকারী! সিকি কাপ পানির সাথে যোগ করুন সিকি কাপ বেবি শ্যাম্পু। এর মাঝে যোগ করুন আধা টেবিল চামচ ভেজিটেবল তেল।

৭) মাখন শ্যাম্পু :
কোঁকড়া চুলের মেয়েদের জন্য এই শ্যাম্পুটি খুব কাজের। একটি বাটিতে মিশিয়ে নিন দুই টেবিল চামচ অ্যালো ভেরা জেল, দুই চা চামচ নারিকেল তেল এবং দুই টেবিল চামচ মাখন। সাধারণ শ্যাম্পুর মতোই ব্যবহার করুন একেও।