ঘণ্টার পর ঘণ্টা আমার সাথে শারীরিক মিলনে লিপ্ত হতো, আমার কোন কথা শুনতো না…

স্কুলের ছাত্রীরা ঘন্টা চুক্তিতে এ কি করছে! ছিঃ ছিঃ ছিঃ দেখুন ভিডিওতে

shajghor_school girlsআমার স্বামী, বেশিরভাগ সময় দেশের বাইরে থাকেন। ছেলে ও আমি জীবনের বেশির ভাগ সময়টা একাই থেকেছি। ছেলের বন্ধুরা সব সময়েই বাড়িতে আসতো, আমি বাঁধা দিই নি। বছর তিনেক আগে ছেলের সাথে ভার্সিটির এক বন্ধু আসে। ছেলেটি ভীষণ সুন্দর দেখতে।

দেখুন একজন নারী পাগল হয়ে উঠলে কী করতে পারে ! (ভিডিওসহ)

আমিও যথেষ্ট রূপবতী। এখনো আমার বয়স বোঝা যায় না, ফিগারও আকর্ষণীয়। ছেলেটি প্রথমদিন আসার পর থেকেই ঘনঘন বাসায় আসতে থাকে। সে আমাকে প্রচণ্ড গুরুত্ব ও সময় দিত। অনেক প্রশংসাও করতো। আমার ছেলে যখন বাসায় থাকত না, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তখনই আসত সেই বন্ধু।

আমিও গল্প করতাম, খুব ভালো লাগত। এভাবে আমরা পরস্পরের প্রতি দুর্বল হয়ে পড়ি। ও বলে আমাকে না পেলে সে আত্মহত্যা করবে। আমি তার স্বপ্নের নারীর মত। তার আবেদনে সাড়া দিই। আমাদের মাঝে নিয়মিত ঘন্টার পর ঘন্টা শারীরিক সম্পর্ক হতে শুরু করে।

ঐশীর হট ভিডিও ফাঁস করল বন্ধুরা (ভিডিওটি সহ)

শারীরিক সম্পর্কটা আমি খুব উপভোগ করি, যা এত বছরের বিবাহিত জীবনে করিনি। আমরা পরস্পরকে ছাড়া থাকতে পারি না। আমার প্রতি ওর ভালোবাসাটাও খুব খাঁটি। ও আমাকে এখনই বিয়ে করতে চায়। আমাকে নিয়ে দেশের বাইরে চলে যাবে। আমি ছেলেদের কথা ভেবে সিদ্ধান্ত নিতে পারি না।

এভাবেই চলছিল। কিন্তু আমার ছেলের প্রেমিকা আমাদের সম্পর্কে জেনে যায়। মেয়েটি আমার প্রেমিকের মোবাইলে আমাদের কিছু ঘনিষ্ঠ ছবি দেখে ফেলে ও হুমকি দেয় যে আমার ছেলেকে সব জানিয়ে দেবে।

মেয়েটি এখনো কিছু জানায় নি। কিন্তু জানিয়ে দিলে আমার মরে যাওয়া ছাড়া উপায় থাকবে না। আমি বুঝতে পারছি না এখন কী করবো। শুধু আত্মহত্যা করতে ইচ্ছা করে।”

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *