ঋতু পরিবর্তনের সময় কীভাবে করবেন রূপচর্চা

ঋতু পরিবর্তন ও ত্বকের ধরনভেদে রূপচর্চার নিয়মনীতি বদলে যায়। ত্বকের সতেজতা ধরে রাখতে প্রয়োজন বিশেষ যত্ন। সে বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন রূপ বিশেষজ্ঞরা।


ব্ল্যাকহেডস –

নাকের ওপর আর ঠোঁটের নিচের থুতনির ওপরের অংশে ব্ল্যাকহেডসের সমস্যায় কম-বেশি সবাইকেই ভুগতে হয়। সাধারণত শরীরের হরমোন পরিবর্তন এবং অতিরিক্ত প্রসাধনী ব্যবহারের কারনে ব্ল্যাকহেডসের সমস্যা হয়। তাই নিয়মিত পরিচর্যা করা জরুরি।

মুখে ময়লা জমে ব্ল্যাকহেডস হতে পারে। এ থকে বাঁচতে চালের গুঁড়া, শসার রস, গাজরের রসের সঙ্গে সামান্য পরিমাণ অলিভ অয়েল মিশিয়ে ২০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখতে হবে। এরপর মুখ ধুয়ে ফেলতে হবে।

এ ছাড়াও ব্ল্যাকহেডস তোলার জন্য ডিমের সাদা অংশ মুখে লাগিয়ে তাতে একটি টিস্যু চেপে রাখতে হবে। টিস্যুটি শুকিয়ে গেলে ২০ মিনিট পর টেনে তুলে ফেলতে হবে।

বিঃ দ্রঃ যেকোনো একটি পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে।

মরা চামড়া :
আমাদের ত্বকের ওপর মরা কোষগুলো জমলে ত্বক অনুজ্জ্বল দেখায়। নিয়মিত স্ক্রাবিংয়ের ফলে মরা কোষ ঝরে যায়। মাসে অন্তত দুবার মরা চামড়া তুলে ফেলা উচিত। এ জন্য কিছু স্ক্রাব কীভাবে বানাবেন তা দেখে নিন।

স্বাভাবিক ত্বকের জন্য :
কাঠ বাদামের পেস্ট, চালের গুঁড়া, দুধ ও মধু মিশিয়ে লাগাতে হবে।

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য :
চালের গুঁড়া, পাকা পেপের রস, শসার রস এবং যাঁদের ব্রণের দাগ আছে, তাঁরা মেথির গুঁড়া সামান্য মিশিয়ে লাগাতে পারেন।

সংবেদনশীল ত্বকের জন্য :
শুধু চালের গুঁড়ার সঙ্গে টকদই মিশিয়ে মুখে লাগাতে হবে।

স্ক্রাবিংয়ের পর মুখ ধুয়ে অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। এতে ত্বক শুষ্ক হবে না। বাজারে ভালো ব্র্যান্ডের ময়েশ্চারাইজার কিনতে পাওয়া যায়। এ ছাড়াও গ্লিসারিন, গোলাপজল, অলিভ অয়েল একত্রে মিশিয়ে একটি বোতলে রেখে দিন। শীতে নিয়মিত এটি ময়েশ্চারাইজার হিসেবে ব্যবহার করুন।