এই শীতে নিজেকে আকর্ষণীয় করে তুলুন সহজ “মেকআপ ট্রিকে”

শীতকাল সাজগোজের জন্য সবচাইতে উপযোগী একটি ঋতু। কারণ শীতকালে মেকআপ অনেকক্ষণ সুন্দর থাকে এবং গলে যাওয়ার ভয় থাকে না। তারপরও শীতকালে মেকআপ করা নিয়ে অনেকেই বিপদে পড়ে যান। কারণ শীতে ত্বক হয়ে ওঠে রুক্ষ্ম ও মলিন। কালচে ছোপ অনেক বেশি দেখা যায়, একই সাথে রুক্ষ্মতার কারণে সাজগোজটাও ঠিক যেন ত্বকে মানায় না। অনেকে এটাও বুঝে উঠতে পারেন না যে কীভাবে সাজলে মানানসই হবে এই মৌসুমের সাজ।


মেকআপের আগে মুখ ভালো করে ধুয়ে নিন
অনেকেই তাড়াহুড়ো করে মেকআপের আগে যেনতেন ভাবে মুখ ধুয়ে নেন। ফলে পরবর্তীতে মুখের কালচে ভাব দূর করতে পারেন না। এই কাজটি করবেন না। মেকআপের আগে অবশ্যই মুখ ভালো করে ধুয়ে নেবেন। এতে করে মেকআপে আপনাকে উজ্জ্বল দেখাবে। এছাড়াও ভারী সাজের আগে স্ক্রাব করে নিলে মুখে মেকআপ ভালো বসবে।

ময়েশ্চারাইজার লাগান –
মুখ ধোয়ার পর অবশ্যই মুখে ময়েসচারাইজার লাগাবেন। বিশেষ করে যে ময়েসচারাইজারে তেলের পরিমান বেশি তা ব্যবহার করবেন। এই ময়েশ্চারাইজার ত্বকের ওপর একটি সুরক্ষা পর্দা তৈরি করবে। এবং দ্রুত ত্বক শুকিয়ে যাবে না। যাদের ত্বক বেশি তৈলাক্ত তাদের সাধারন ময়েশ্চরাইজার ব্যবহার করাই ভালো।

সানস্ক্রিন লাগাতে ভুলবেন না –
অনেকেই একটি ভুল কাজ করেন তা হলো সানস্ক্রিন লাগালে ময়েসচারাইজার লাগান না, অথবা ময়েসচারাইজার লাগালে সানস্ক্রিন লাগান না। কিন্তু শীতকালে মেকআপ করতে হলে দুটোরই প্রয়োজন আছে। কারণ দুটি দু ধরণের কাজ করে। বেশি মাত্রার এসপিএফ যুক্ত সানস্ক্রিন অবশ্যই লাগাবেন। যদি মুখে ফাউন্ডেশন লাগান তবে সাধারন সানস্ক্রিন লাগালেই চলবে।

হালকা ম্যাট ফাউন্ডেশন লাগান –
শীতকালে গ্লসি কিংবা বেশি ম্যাট ফাউন্ডেশন ভালো মানায় না। হালকা ম্যাট ফাউন্ডেশন হলে ত্বকের উজ্জলতা আরও বাড়বে ও একটু গোলাপি আভা আসতে সাহায্য করবে। ফাউন্ডেশন না লাগাতে চাইলে হালকা করে ম্যাট পাউডার লাগিয়ে নিন।

হালকা করে ব্লাশন দিন –
মেকআপের অতি গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হলো ব্লাশন। কিন্তু অনেকেই ব্লাশন এড়িয়ে যান। এটা ভুল কাজ। অবশ্যই ব্লাশন দেবেন, বিশেষ করে শীতকালে। মুখের আকৃতি ফুটিয়ে তোলার পাশাপাশি ব্লাশন গোলাপি আভা আনবে। ত্বকের রঙ বুঝে ব্লাশনের রঙ বাছাই করুন। ত্বকের রঙ লালচে ফরসা হলে গোলাপি, সাদা ফরসা হলে কোরাল এবং শ্যামলা হলে বাদামী ব্লাশন দিন।

হালকা রঙের লিপস্টিক –
শীতকালে পোশাকের সাথে মিলিয়ে যে কোনো রঙের লিপস্টিক মানিয়ে যায়। তবে বর্তমানের ফ্যাশন ট্রেন্ড অনুযায়ী হালকা রঙ ব্যবহার করাই উত্তম। বিশেষ করে যদি প্রতিদিনের ক্যাজুয়াল মেকআপ হয়। হালকা বাদামী, হালকা গোলাপি, কোরাল কিংবা ত্বকের রঙের সাথে মিলিয়ে ন্যুড লিপস্টিক ব্যবহার করতে পারেন। এর ওপর ব্যবহার করুন ময়েসচারাইজার সমৃদ্ধ লিপবাম। লিপগ্লস ও গ্লসি লিপস্টিক ব্যবহার না করাই ভালো

চোখে আনুন স্মোকি লুক –
লিপস্টিক হালকা হলে সাধারন ভাবেই চোখে দিতে হয় স্মোকি সাজ। তবে তা যেন অতিরিক্ত না হয়ে যায়। হালকা ভাবেই স্মোকি লুকটা আনুন। পোশাক ও লিপস্টিকের রঙের সাথে মিলিয়ে আইশেড নির্বাচন করে স্মোকি করে ফেলুন। আর যদি প্রতিদিনের ক্যাজুয়াল মেকআপ হয় তাহলে স্মোকি না করে চিকন করে আইলাইনার বা কাজল দিয়ে চোখ একে নিন। মাসকারা ব্যবহার করুন। এতে চোখের সাজ ফুটে উঠবে ভালোভাবে।