এক নিমিষে ত্বক ফর্সা করার দারুণ ২টি ফেসপ্যাক

ব্যস্ততার কারনে পাওয়া যায় না রূপচর্চার একটুখানি সময়। তারপর সারাদিনের কাজ শেষে ত্বক দেখায় ক্লান্ত, মলিন ও কালো। তাহলে উপায়? বেড়াতে যাওয়ার আগে কি চেহারার উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনা সম্ভব নয়? ঘরোয়া কিছু প্যাক ব্যবহার করে খুব সহজেই চেহারার ক্লান্তি ভাব দূর করে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করা যায়। কীভাবে? আসুন জেনে নিই দুটি ফেস প্যাক সম্পর্কে। বেড়াতে যাওয়ার আগে লাগিয়ে নিতে পারেন এর যেকোন একটি। আর এক নিমিষে পেয়ে যান উজ্জ্বল প্রাণবন্ত ফর্সা ত্বক।১। কলা পেঁপের ফেস প্যাক –

যা যা প্রয়োজন-
– ১ টুকরো পেঁপে
– ১ টুকরো কলা
– ১/৪ চাচামচ লেবুর রস

– পেঁপে, কলা ভাল করে মিশিয়ে পেষ্ট করে নিন। এবার এতে লেবুর রস দিয়ে আবার ভাল করে মেশান। প্যাকটি ত্বকে ভাল করে লাগিয়ে শুকানোর জন্য অপেক্ষা করুন। ১৫ মিনিট পর প্যাক শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ভাল করে মুখ ধুয়ে ফেলুন।
যেভাবে কাজ করে

পেঁপেতে এক প্রকার এনজাইম আছে যা ত্বকের রঙ উজ্জ্বল করে, দাগ দূর করে থাকে। ফ্রুট ফেস প্যাক সব ধরনের ত্বকের জন্য উপযোগী হয়ে থাকে। তৈলাক্ত ত্বকের অতিরিক্ত তেল শুয়ে নিতে ত্বককে মসৃন করতেও এই প্যাকের জুড়ি নেই।

২। বেসন, হলুদ, মধুর ফেইস প্যাক –

যা যা প্রয়োজন_
– বেসন
– হলুদ
– মধু
– লেবুর রস

– ২ চা চামচ বেসন, ১ চা চামচ মধু, ১/৪ চা চামচ হলুদ গুঁড়া, এবং ১/২ চা চামচ লেবুর রস দিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। খুব ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে যাতে বেসনের কোন দানা না থাকে। এবার মুখ পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। মুখ শুকানোর পর প্যাকটি লাগিয়ে ফেলুন। ২০ মিনিট পর প্যাক শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। সাথে সাথে আপনি পেয়ে যাবেন উজ্জ্বল ত্বক
যেভাবে কাজ করে

বেসনে আছে প্রোটিন। আর হলুদ এবং লেবুর রসে আছে স্কিন ব্লিচ করার উপাদান। যা ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে থাকে। মধু ত্বক ময়েশ্চারাইজ করে ভিতর থেকে ত্বকে গ্লো নিয়ে আসে। এই প্যাকটিও সব ধরনের ত্বকে কার্যকরী। তবে সংবেদনশীল ত্বকের অধিকারীরা লেবুর রসের পরিমাণ কম দেবেন।

⇒ ভালো লাগলে প্লিজ বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন শেয়ার করতে √ এখানে ক্লিক করুন

ছবিটি ইন্টারনেট হতে সংগৃহীত
তথ্যসুত্রঃ প্রিয় লাইফ