কম বয়সী দম্পতিরা যে ১০টি কথা অবশ্যই মনে রাখবেন

তরুণ দম্পতিরা বয়সের কারণেই অনেক বেশী উচ্ছল হয়ে থাকেন, জীবনটাকে উপভোগও করতে পারেন বেশী কেননা পরস্পরের সাথে বেশী সময় কাটাতে পারেন তাঁরা। আবার বয়স কম হবার কারণে জীবনের অনেক কিছুই খুব সুন্দরভাবে গুছিয়ে নিতে পারেন। তবে হ্যাঁ, কমবয়সী দম্পতিদের ক্ষেত্রে কিছু ব্যাপার মনে রাখা খুবই জরুরী।

১. বিয়ে করেছেন বলেই হুট করে বাচ্চা নিতে যাবেন না। হ্যাঁ, পরিবার থেকে চাপ দেবে। কিন্তু বুঝেশুনে পরিবার পরিকল্পনা করুন। এক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ নিন, নিজেদের আর্থিক বিষয়টিও মাথায় রাখুন। সব মিলিয়ে সন্তান তখনই নিন যখন আপনারা তৈরি।

২. কম বয়সে আবেগ বেশী থাকে, ফলে দেখা যায় একটু মনোমালিন্য থেকেই বিশাল ঝগড়া হয়ে যায়। এই ব্যাপারটা নিয়ন্ত্রণ করতে হবে নিজেদেরই। তুচ্ছ বিষয় নিয়ে বারবার ঝগড়া করতে থাকলে সম্পর্কে তৈরি হবে দীর্ঘমেয়াদী সমস্যা।

৩. ঝগড়া হতেই পারে, কিন্তু সেটা নিজেদের মাঝেই রাখবেন। অল্প জিনিসে অস্থির হয়ে পরিবার ও বন্ধুদের ডেকে বিশাল একটা কাহিনী করে ফেলবেন না। কথায় কথায় বাপের বাড়ি চলে যাওয়া বা ডিভোর্স দেয়ার হুমকিও দেবেন না।

৪. নিজেদের আর্থিক পরিকল্পনা করুন খুব বুঝেশুনে। কতটা খরচ করতে পারবেন আপনারা, আপনাদের উপার্জন কীভাবে বৃদ্ধি করা যায় ইত্যাদি সমস্ত ব্যাপারই দুজনে আলোচনা করা সিদ্ধান্ত নিন। জীবন তো পড়েই আছেন এমন চিন্তাভাবনা করবেন না।

৫. সঞ্চয় শুরু করুন এখনই। এতে কোনভাবেই দেরি করবেন না।

৬. বিয়ে করেছেন বলেই শিক্ষা জীবনে ঢিলেমি দেবেন না। উচ্চ শিক্ষা গ্রহনের পর্বটি অবশ্যই সমাধা করুন।

৭. যারা বিদেশে সেটল হতে চান, তাঁরা বিয়ের পর থেকেই চেষ্টা করুন। এবং সন্তান নেয়া সহ জীবনের অন্য সব বড় পরিকল্পনাও সেভাবেই করুন।

৮. আপনারা তরুণ দম্পতি বিধায় মুরুব্বি অনেকেই আপনাদের সম্পর্কে নাক গলাতে আসবেন। কিন্তু একটা

৯. কম বয়সে মন অন্যদিকে চলে যেতেই পারে। অন্য কাউকে আকর্ষণীয় মনে হওয়া, ফেসবুকে বা অন্য কোন সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশী সময় দেয়া, বিপরীত লিঙ্গের বন্ধুদের সাথে অধিক মেলামেশা। এই সমস্তই কঠোর হাতে দমন করুন।

১০. অস্থির অবস্থায় বা আবেগের বশে কোন সিদ্ধান্ত নেবেন না কম বয়সের দাম্পত্যে। এবং হুট করে অনেক বেশী খরচও কখনো করে ফেলবেন না।

নিয়মিত আপডেট পেতে এখানে ক্লিক করুন ও আমাদের ফেসবুক ফ্যান পেজে লাইক দিন। ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *