গরমে ত্বককে ঠান্ডা রাখার দু’টি ফেইস মাস্ক

shajghor_Hot Day Skin Care
ঝলসানো গরমে ত্বকের ক্ষতি হতে পারে। তাই দরকার সুরক্ষা। আম-চাইবীজ বা সাবুদানা এবং লেবুর ফেইস মাস্ক ফিরিয়ে আনতে পারে ত্বকের হারানো যৌবন।

১/ আম এবং চাই বীজের ফেইস মাস্ক :
সব ধরনের ত্বকের জন্য উপযোগী হল আম এবং চাই বীজের মিশ্রণে তৈরি হাইড্রেটিং ফেইস মাস্ক। এটা ক্ষতিগ্রস্ত ত্বক পুনরুজ্জীবিত করার পাশাপাশি নমনীয় করে।

প্যাকটি তৈরি করতে যা লাগবে-
কুঁচি করে কাটা পাকা আম ২ টেবিল-চামচ, চাই বীজ দুই টেবিল-চামচ, এবং অ্যালোভেরা জেল ১ টেবিল-চামচ।

অর্ধেক পরিমাণ আমের কুঁচি নিয়ে তা ব্লেন্ড করে মিহি করে নিতে হবে। চাই বীজ ঠান্ডা পানিতে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রেখে পানি ঝাড়িয়ে নিন। এরপর আম ও চাইবীজ বিটার দিয়ে ভালো করে ফেটে নিতে হবে। খুব ভালো করে মেশানো হলে ১৫ মিনিট ফ্রিজে রেখে দিন। ফ্রিজে রাখার ফলে মিশ্রণটি জেলে পরিণত হবে।

এরপর অ্যালোভেরার জেল নিয়ে, আমের পেস্ট এবং চাইবীজের জেল পরিমাণমতো নিয়ে একটি পরিষ্কার পাত্রে ভালো করে মেশান। পুরো মিশ্রণটি মুখে মেখে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর হাল্কা গরম পানিতে ভেজানো কাপড় দিয়ে মুখ থেকে মাস্কটি মুছে ফেলুন। এরপর ঠান্ডা পানি মুখে দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

২/ সাবুদানা এবং লেবুর ফেইস মাস্ক :
এই গরমে ত্বক পরিষ্কার করতে সাবুদানা এবং লেবুর রস দিয়ে তৈরি এই জেল মাস্ক ত্বক নরম এবং কোমল করে তুলবে। সব ধরনের ত্বকে এই মাস্ক ব্যবহার করা যায়।

সংবেদনশীল এবং তৈলাক্ত ত্বকের জন্য বেশি ভালো।

এই মাস্ক তৈরি করতে যা লাগবে –
সাবুদানা ১ টেবিল-চামচ, লেবুর রস ৩ টেবিল-চামচ, ব্রাউন সুগার ১ টেবিল-চামচ, এবং মুলতানি মাটি ১ টেবিল-চামচ।

লেবুর রস এবং সাবুদানা একটি পাত্রে নিয়ে অল্প আঁচে গরম করতে হবে, যেন ঘন জেল তৈরি হয়। তারপর ঠান্ডা করে নিন।

এবার এই জেলের সঙ্গে চিনি ও মুলতানি মাটি ভালোভাবে মিশিয়ে স্ক্রাবার হিসেবে পুরো মুখে আলতো করে ঘষে নিন। তবে অবশ্যই চোখের চারপাশ এড়িয়ে এই মিশ্রণ মুখে ব্যবহার করতে হবে।

এরপর হালকা গরম পানিতে ভেজানো একটি কাপড় দিয়ে পুরো মুখ মুছে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।