ঘামের দুর্গন্ধ থেকে পরিত্রাণের কয়েকটি সহজ উপায়!


আমাদের শরীরে জীবাণু বসবাস করে। সেসব জীবাণুরাই ঘামের সঙ্গে মিশে দুর্গন্ধ সৃষ্টি করে। যাদের শরীরে জীবাণুর সংখ্যা তুলনামূলক বেশি, তাদের গন্ধও বেশি! জেনে নিন পরিত্রাণের উপায়।

০ বাজার থেকে এমন একটা বডি ওয়াশ বেছে নিতে হবে, যাতে রয়েছে ন্যাচারাল অ্যাসট্রিনজেন্ট, যেমন টি-ট্রি। ন্যাচারল অ্যাসট্রিনজেন্ট ঘামের কোশগুলোকে আটকে অতিরিক্ত ঘাম হওয়া বন্ধ করে।

০ গোসলের সময় ‘অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল’ সাবান ব্যবহার করতে হবে।

০ গোসলের পরে সুগন্ধি পাউডার মাখা জরুরি। এতে একটা রিফ্রেশিং ইফেক্টও আছে।

০ ডিওডোরেন্ট লাগাতে হবে ভালো করে। এমন একটা ডিওডোরেন্ট কিনে আনতে হবে, যাতে রয়েছে পটাশিয়াম বা অ্যামোনিয়াম অ্যালাম। এই কেমিক্যালগুলো গায়ে দুর্গন্ধ তৈরি হতে দেয় না।

০ গোসলের সময় সুগন্ধি তেল oil খুব উপকারী। সেটাও ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

০ কেবল গোসল করলেই দুর্গন্ধ bad smellপুরোপুরি চলে যাবে, এমনটা কিন্তু নয়। পাশাপাশি ডায়েটে পুষ্টিকর খাবার খাওয়াও দরকার।

০ শাক-সবজির মধ্যে ব্রোকলি, বাঁধাকপি, ফুলকপি খেলে দুর্গন্ধযুক্ত গ্যাসের থেকে মুক্তি পাওয়া যেতে পারে।

০ ঠিকমতো পরিপাক না হওয়া খাবারও অনেক সময় শরীরে টক্সিন তৈরি করে দুর্গন্ধ সৃষ্টি করতে পারে। ফলে পরিপাক যাতে ঠিকমতো হয়, সেদিকেও খেয়াল রাখা দরকার।

০ দুর্গন্ধ দূর করতে সালফিউরিক অ্যাসিডযুক্ত খাবার- গ্লুটেন, ডেয়ারি ও রেড মিটকে ডায়েট চার্টের বাইরে রাখুন।

০ বেশি করে পানি খেতে হবে, এতে অবাঞ্চিত টক্সিনরা সহজেই বিদায় নেবে।

উল্লেখিত নিয়মগুলো ঠিকঠাক মেনে চললে, আশা করা যায়, দ্রুত শরীরের দুর্গন্ধ দূর হবে।

সুত্রঃ পিএনএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *