চটজলদি কমিয়ে ফেলুন মুখের বাড়তি চর্বি

মুখে চর্বি জমেছে? মুখ ফোলা লাগছে? নিজেকে আয়নায় দেখতে অসহ্য লাগছে? চিন্তার কিছু নেই। কয়েকটি সহজ কাজে আপনি মুখের চর্বিকে কমিয়ে ফেলতে পারেন। যা আপনাকে করতে পারে আরও আকর্ষণীয়। আসুন জেনে নিই মুখে জমে থাকা চর্বি দূর করার উপায়।পর্যাপ্ত পানি পান করুন:
পর্যাপ্ত পানি পান করার মাধ্যমে একজন মানুষের শরীর থেকে ক্ষতিকর টক্সিন বের হয়ে যায়। শরীর ডিহাইড্রেটেড হয়ে তার প্রভাব মানুষের মুখের ত্বকেও পড়ে। অনেক ক্ষেত্রে মুখ ফুলে যেতে পারে। তাই প্রতিদিন কমপক্ষে ৬৪ আউন্স পানি পান করুন। বেশি পানি পান আপনার ক্ষুধা কমাতেও সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

ফ্যাট জাতীয় খাবার কম গ্রহণ করুন:
যথাসম্ভব কম ফ্যাটযুক্ত খাবার গ্রহণ করুন। ঘুমানোর ঠিক আগে খাওয়ার অভ্যাস ত্যাগ করুন। এছাড়া সোডা, বিভিন্ন ধরনের ডেজার্ট গ্রহণ থেকে যথাসম্ভব বিরত থাকুন। সোডিয়াম গ্রহণের পরিমাণও ধীরে ধীরে হ্রাস করতে হবে। অতিরিক্ত লবণ আপনার মুখকে ফুলিয়ে দিতে পারে। এছাড়া অতিরিক্ত লবণ শরীরের জন্যও খুব ক্ষতিকর।

শরীর চর্চার একটি রুটিন করে নিন:
আপনি যদি শরীরের ওজন কমাতে সক্ষম হন, তবে তা আপনার মুখের চর্বি কমাতেও সাহায্য করবে। ডাক্তাররা প্রতিদিন কমপক্ষে ৩০ মিনিট কার্ডিওভাস্কুলার শরীর চর্চার উপর বেশি জোর দেন। এর মধ্যে রয়েছে জগিং, সাইক্লিং, সাঁতার ইত্যাদি। যখন এসব কাজের মাধ্যমে আপনার ওজন কমিয়ে ফেলবেন তখন আপনার গাল, চিবুকও স্লিম হয়ে উঠবে।

মুখের বিভিন্ন ব্যায়াম করুন:
কিছু মুখের ব্যায়াম আপনার মুখের অতিরিক্ত ফ্যাটকে ঝরিয়ে দিতে সাহায্য করে। যেমন কয়েক সেকেন্ডের জন্য দাঁতে দাঁত চেপে হাসুন। চোখ কুঁচকানো বা সরু করা থেকে বিরত থাকুন। আপনার ঠোঁট কুঞ্চিত করুন এবং ব্যায়ামটি চালিয়ে যান।

আবার গাল ফুলানোর কিছু চর্চাও করতে পারেন। প্রথমে লম্বা একটা শ্বাস নিন এবং বাতাস সহকারে আপনার গাল ফুলিয়ে নিন। পাঁচ সেকেন্ড বাতাস ধরে রাখুন। এরপর বাতাস ডান দিকের গালের দিকে নিয়ে যান। এর পাঁচ সেকেন্ড পর বাম দিকের গালের দিকে নিয়ে যান। এরপর পুরো বাতাস ছেড়ে দিন। এবারে বারবার করতে থাকুন।

পর্যাপ্ত ঘুমান:
একজন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের রাতে কমপক্ষে ৭-৮ ঘণ্টা ঘুমানো উচিত। এর কম হলে আপনার মুখে এর ছাপ পড়তে পারে। ক্লান্তিতে আপনার মুখ স্ফীত হয়ে যেতে পারে। তাই পর্যাপ্ত ঘুমানোর কোন বিকল্প নেই।

মেকাপ ব্যবহারে হোন সচেতন:
চিবুকে এবং গালের নিচের দিকে কিছুটা গাঢ় শেডের মেকাপ নিন। এটা আপনার মুখকে চিকন দেখাবে।
তবে মনে রাখবেন অতিরিক্ত মেকাপ মুখের চেহারা বিশ্রি করে দিতে পারে।

চুলের স্টাইল পরিবর্তন করুন:
চুলের ভুল স্টাইলের কারণে বৃত্তাকার মুখ আরও বেশি গোল লাগতে পারে। কোন হেয়ার স্পেশালিষ্টের সাথে আপনার চুলের স্টাইল নিয়ে কথা বলতে পারেন। এমন কোন স্টাইল বেছে নিন যা আপনার মুখকে চিকন দেখাবে এবং চিবুক এবং গাল থেকে অন্যের মনযোগ সরিয়ে দেবে।

মাত্র দুই সপ্তাহে ফর্সা হতে চান তাহলে > এখানে ক্লিক করুন <

সুত্রঃ প্রিয় লাইফ

One comment

  1. Thank s

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *