চুলের যত্নে ১১ টি সহজ টিপস

১) সপ্তাহে অন্তত তিন দিন আপনার চুল পরিস্কার করুন কোন হারবাল শ্যাম্পু দিয়ে (যেমন – মডার্ণ হারবাল শ্যাম্পু)।

২) মাথার তালুতে সরাসরি শ্যাম্পু প্রয়োগ করবেন না। প্রথমে শ্যাম্পু অল্প পানি দিয়ে মিশিয়ে নিন তারপর মাথার তালুতে হালকাভাবে ম্যাসাজ করে লাগান অনধিক ২ মিনিট।

৩) আপনার যদি খুশকি থাকে তাহলে, এ্যন্টি-ড্যানড্রাফ শ্যাম্পু ব্যবহার করুন এবং মাথার তালু পরিস্কার রাখুন চুলের সু-স্বাস্থ্যের জন্য।

৪) মাথায় যদি খুশকি থাকে, তাহলে কোন সাধারন তেল কখনোই ব্যবহার করবেন না। সাধারন তেল ব্যবহারে আপনার মাথার তালুতে ইনফেকশন দেখা দিতে পারে। (আর্ণিকা হেয়ার অয়েল, মারগান্ডি হেয়ার অয়েল, জবা-কুসুম তেল, মডার্ণ হার্বাল তেল ইত্যাদি ব্যবহার করতে পারেন)। খুশকি সারাতে খেতে পারেন হোমিওপ্যাথিক ঔষধ, ভাল ফল পাবেন।

৫) কখনোই ভেজা চুল আচড়াবেন না। ভেজা চুল আচড়ানো চুল পড়ে যাবার সহজ পদ্ধতি। চুল প্রথমে টাওয়েল দিয়ে ভালভাবে মুছে নিন, তাপর একটু হালকা শুকিয়ে পরিস্কার চিরুনি দিয়ে আচড়ে নিন।

৬) আপনার যদি লম্বা চুল থাকে তাহলে চুল আচড়াতে প্রথমে হাতের আঙ্গুলি ব্যবহার করুন চিরুনির সাথে।

৭) চুল আচড়াতে ফাকা মোটা দাতের চিরুনি ব্যবহার করুন সবসময়।

৮) সবসময় পরিহার করুন অপ্রয়োজনীয় কসমেটিক সামগ্রী যেমন – চুলের জেল, ক্রিম, হেয়ার কালার ইত্যাদি। এগুলোর প্রভাবে আপনার চুলের স্থায়ীভাবে রাসায়কি ক্ষতি হতে পারে। যা আর নিরাময় সম্ভব না।

৯) যদি একান্তই চুলে রং করতে হয়, তাহলে এ্যামোনিয়া ফ্রি কালার ব্যবহার করুন।

১০) অন্যের ব্যাবহৃত চিরুনি, হেলমেট, ক্যাপ ইত্যাদি ব্যবহার হতে বিরত থাকুণ। কারন এথেকে আপনার মাথায় সংক্রামক রোগ হতে পারে।

১১) খুব শক্ত ভাবে চুল বাধবেন না। এবং একই দিকে প্রতিদিন বাধবেন না, কিছুদিন পর পর স্থান পরিবর্তন করে চুলের গিট বাধবেন। আমি আশা করি, আপনি যদি এই সহজ টিপস গুলো মেনে চলেন, তাহলে আপনার ইতিমধ্যে যদি কোন খুশকি বা অন্য কোন সমস্যা দেখা দিয়ে থাকে, তা সমাধান হয়ে যাবে ইনশা-আল্লাহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *