চুলে মেহেদি দেয়ার আগে এই ৬টি কাজ করছেন তো?

চুলে মেহেদি ব্যবহার করা খুব সাধারণ একটি ঘটনা। চুল পড়া বন্ধ করা থেকে শুরু করে চুলের গোড়া মজবুত করতে মেহেদির জুড়ি নেই। কিন্তু মেহেদি চুলে দেয়ার আগে কিছু নিয়ম আছে  যা অবশ্যই of course পালনীয়। আসুন তাহলে জেনে নিন চুলে মেহেদি দেওয়ার কিছু টিপস। in detail
১। মাথায় তালুতে কোনো ইনফেকশনঃ
চুলে মেহেদি ব্যবহারে আগে ভালো করে দেখে নিন মাথার তালুতে কোনো ইনফেকশন আছে কিনা। মাথার তালুতে কোনো ইনফেকশন থাকলে মেহেদি না দেয়াই ভালো।  তাই ইনফেকশন ভালো হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। ইনফেকশন ভালো হওয়ার পর then চুলে মেহেদি ব্যবহার করুন।

২। ভ্যাসলিনের ব্যবহারঃ
চুলে মেহেদি দেয়ার সময় কপাল, কানের আশেপাশে মেহেদি লেগে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই কপালে, কানের আশেপাশে ভ্যাসলিন লাগিয়ে নিন। so এতে করে শরীরে অন্যান্য অংশগুলোতে মেহেদি রং লাগবে না।

৩। লেবুর রসের ব্যবহার নয়ঃ
অনেকেই মেহেদির প্যাকে লেবুর রস ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু but মেহেদিতে লেবুর রস ব্যবহার করা উচিত নয়। লেবুর রসে অ্যাসিড আছে যা চুলকে শুষ্ক করে দেয়। লেবুর রসের পরিবর্তে আপনি চায়ের লিকার বা কফি ব্যবহার করতে পারেন। এটি মেহেদির রং আরও গাঢ় করবে।

৪। চুল কালার করা থাকলেঃ
আপনি যদি চুল রং করে থাকেন, তবে মেহেদি লাগাবেন না। কেমিক্যাল রং  এবং মেহেদি রং দুটি মিশে আপনার চুলের ক্ষতি করতে পারে। এমনকি চুল পড়া বেড়ে যেতে পারে। চুলে রং করার ৬ মাস পর মেহেদি লাগাবেন।

৫। চুল রুক্ষ করে তোলে
হ্যাঁ, আপনার মাথার তালু রুক্ষ হলে মেহেদি চুল রুক্ষ করে তুলবে। তাই মেহেদির প্যাকের সাথে তেল, টকদই ব্যবহার করুন। কিংবা মেহেদি লাগিয়ে শ্যাম্পু করে মাথায় তেল লাগান।

৬। সময় দিন
মেহেদি লাগিয়ে সাথে সাথে চুল ধুয়ে ফেলবেন না। At least কমপক্ষে ২ ঘন্টা অপেক্ষা করুন।

⇒ ভালো লাগলে প্লিজ বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন শেয়ার করতে √ এখানে ক্লিক করুন

তথ্যসূত্রঃ দেশ বিদেশ.কম
লিখেছেনঃ নিগার আলম

One comment

  1. মুখের অবান্চিত লোম দূর করবো কিভাবে?plz janaben.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *