জরায়ু ক্যান্সার প্রতিরোধের উপায়

জরায়ুতে ক্যান্সার মূলত জরায়ু মুখের কোষ থেকেই শুরু হয়। বিশ্বে নারীদের কমন ক্যান্সারের মাঝে জরায়ুতে ক্যান্সার  দ্বিতীয়, এবং এই ক্যান্সারের কারনে মৃত্যুর দিক থেকে এটি ৫ম। বিশ্বে প্রতি দুই মিনিটে এক জন নারী এই ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। অথচ একটু সচেতন হলেই এর প্রতিরোধ করা সম্ভব।

কারনঃ
হিউম্যান পেপিলমা ভাইরাসের কারণে ৯০ % -এরও বেশী মানুষ এই ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়। এটাই এই ক্যান্সারের প্রধান কারন।  এই ভাইরাসের মধ্যে হাই রিস্ক কিছু স্ট্রেইন আছে যার প্রতিরোধক ভ্যাকসিন আছে। বাকিগুলোর জন্যে ভ্যাকসিন নেই। তাই ৪০শার্ধ মহিলাদের রেগুলার চেকআপের মাঝে থাকা উচিত। এছাড়াও অল্প বয়সে বিয়ে করা, অল্প বয়সে বাচ্চা নেওয়া,  ঘন ঘন বা অধিক বাচ্চা নেয়া, এইচ আই ভি , হিউম্যান পেপিলমা , ক্লামাইডিয়া ভাইরাসে ইনফেকশনের কারনে একজন নারীর শরীরে এই ক্যান্সার দানা বাধে।

লক্ষনঃ
প্রাথমিক পর্যায়ে এই রোগের তেমন কোন লক্ষন থাকে না। কিন্তু এর উল্লেখযোগ্য লক্ষনগুলো হল,
* যোনিপথে রক্তপাত,
* যোনিপথে দুর্গন্ধযুক্ত নিঃসরণ,
* ওজন কমে যাওয়া, ক্ষুধামন্দা হওয়া,
* পিঠ, তলপেট ও পায়ে ব্যাথা হওয়া, পা ফুলে যাওয়া,
* কাশিতে রক্ত আসা,
*  ডায়রিয়া, পায়খানার সাথে রক্ত আসা ,
* প্রস্রাবে জ্বালা পোড়া , ঘন ঘন প্রস্রাব হওয়া
* রক্তশূন্যতায় ভোগা।

প্রতিরোধঃ
১০ বছর বয়সের পর থেকেই এর প্রতিষেধক টিকা নেয়া যায়। একবার ক্যান্সার হয়ে গেলে ভ্যাকসিনে কোন কাজ হয় না। এর তিনটি ডোজ আছে। প্রথমটির এক মাস পরে দ্বিতীয় টিকা এবং তারও পাঁচ অর্থাৎ প্রথমটির ছয় মাস পরে তৃতীয় ডোজের টিকাটি নিতে হবে। যদিও ভ্যাকসিনে এই ক্যান্সার ১০০% থেকিয়ে রাখা যায় না। তাই ২১ বছর হবার পর থেকেই প্রতি ৩-৫ বছরে একবার স্ক্রিনিং টেস্ট করানো উচিত। তবে  ৪০ বছরের পর থেকে এই পরীক্ষা নিয়মিত করা উচিত।

চিকিৎসাঃ
স্টেজের উপর ভিত্তি করে এর চিকিৎসা দেয়া হয়। সার্জারি, রেডিও এবং কেমোথেরাপি চিকিৎসা দেয়া হয়। লক্ষনের উপর নির্ভর করে ব্যথানাশক, এন্টিবায়োটিক, ব্লাড ট্রান্সফিউশন ইত্যাদি দেয়া হয়। সার্জারির মধ্যে , wertheim’s radical hysterectomy, pelvic exenteration উল্লেখযোগ্য। প্রথম ও দ্বিতীয় স্টেজে সার্জারি করা হয়। আরচেয়ে বেশী দেরি হয়ে গেলে সার্জারি করে লাভ হয় না। তাই মানুষকে এই ব্যাপারে যথেষ্ট সচেতন হতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *