টাক পড়া ঠেকিয়ে নতুন চুল গজানোর হেয়ার মাস্ক


শরীরের যত্নের ব্যাপারে পুরুষরা সবসময়ই উদাসীন থাকার কারনে চুল ও ত্বক থেকে যায় অযত্ন আর অবহেলায়। অথচ সপ্তাহে মাত্র ১ দিন নিজের ব্যাপারে সচেতন হলে টেকো মাথার অস্বস্তি কুড়াতে হয় না। ঠিকমতো তেল না দেয়া, শ্যাম্পু না করা কিংবা অন্য কোনো কারণে চুল পড়া শুরু হয়। তাই যারা এঅবস্থা থেকে রেহায় পেতে চান, তারা নিচের প্যাক গুলো ব্যবহার করুন।

অলিভ অয়েলের হেয়ার মাস্ক :
এই হেয়ার মাস্কটি তৈরি করতে চুলের ঘনত্ব ও দৈর্ঘ্য অনুযায়ী অলিভ অয়েল গরম করে নিন। এরপর এতে ১ থেকে ২ চা চামচ মধু এবং ১ চা চামচ দারুচিনি গুঁড়া দিয়ে খুব ভালো করে মিশিয়ে নিন। এই হেয়ার মাস্কটি চুলের গোঁড়ায় মাথার ত্বকে ভালো করে ঘষে লাগাতে হবে। ১৫ থেকে ২০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে চুল hair ধুয়ে ফেলুন।

এতে চুলের গোঁড়া মজবুত হবে এবং টাক পড়ার সম্ভাবনা একেবারেই কমে যাবে।

মেহেদি পাতার হেয়ার মাস্ক :
এই মাস্কটি তৈরি করতে মেহেদি পাতা ১০০ গ্রাম এবং সরিষার তেল ২৫০ গ্রাম। একটি প্যানে সরিষার তেল ঢেলে গরম হতে দিন। এরপর এতে মেহেদি পাতাগুলো দিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে নিতে হবে। ৫ থেকে ৭ মিনিট ফুটিয়ে চুলা থেকে নামিয়ে তেল ঠাণ্ডা হতে দিন।

মেহেদি পাতা ছেঁকে নিয়ে এই তেল চুলের গোঁড়ায়, মাথার ত্বকে ভালো করে লাগিয়ে রাখুন ১ ঘণ্টা। এবার চুল শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন চুল পড়া hair fall কমে গেছে অনেকাংশেই।

জবা ফুলের হেয়ার মাস্ক :
এক গ্লাস পানি একটি পাত্রে নিয়ে ফুটাতে দিন। পানি ফুটে উঠলে এতে ২ টি জবাফুল দিয়ে ৩ থেকে ৪ মিনিট আবারও ফুটাতে হবে। এরপর পানি ঠাণ্ডা হলে ছেঁকে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস দিয়ে মিশিয়ে নিন। পরিষ্কার মাথায় এই মিশ্রণটি ভালো করে লাগিয়ে রাখুন। জবা ফুলের রস নতুন চুল গজাতে hair growth সাহায্য করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *