তেল দিয়ে মুখ পরিষ্কার করার উপকারিতা জেনে নিন!

আপনি কী কখনো তেল দিয়ে আপনার মুখের ত্বক পরিষ্কার করার কথা ভেবেছন? হয়তো বেশির ভাগ মানুষ ত্বকে এই তেলতেলে ভাব একদমই পছন্দ করেননা। সুতরাং আপনারা বলতেই পারেন তেল দিয়ে ক্লিনঞ্জিং-এটা খুবই বাজে একটা আইডিয়া।


কিন্তু আসলে তেল দিয়ে মুখ পরিষ্কার করার কিছু উপকারিতা আছে। তেল ব্যবহার করলে ত্বকের ময়লা থেকে আপনি খুব তাড়াতাড়ি নিষ্কৃতি তো পাবেনই, এরই সঙ্গে তেল আপনার ত্বককে আরো ময়েশ্চারাইজ করবে।

জেনে নিন, তেল দ্বারা ত্বক পরিষ্কার করার কিছু উপকারিতা:

ব্রণ দূর করে:
তেল দিয়ে ত্বক ক্লিনঞ্জিং এর একটি বিশেষ উপকারিতা হচ্ছে, এটা ব্রণ দূর করে। কিছু কিছু তেল ত্বকের ব্রেক আউট এবং অন্যান্য ক্ষতিও দূর করে থাকে।

মেকআপ তোলার ক্ষেত্রে:
আপনি চাইলে মেকআপ তুলতে ব্যবহার করতে পারেন তেল। আসলে তেল আপনার ত্বককে অনেক আলতোভাবে পরিষ্কার করে এবং মেকআপ তুলে ফেলে। ত্বকে জমে থাকা ময়লাও দূর করে দেয়।

রিঙ্কেলস বা ত্বকের ভাজ কমায়:
তেল ত্বকের রিঙ্কেলস অনেকাংশে কমিয়ে দেয় এবং তা খুব সুরক্ষিতভাবে। যেহেতু তেলে কোনো ক্ষতিকারক কেমিক্যাল থাকে না, তাই আপনি নিশ্চিন্তে তা ব্যবহার করতে পারেন।

ময়েশ্চারাইজ করে:
তেল আপনার ত্বককে খুব ভালোভাবে ময়েশ্চারাইজ করে। তেল ব্যবহার করলে আপনার বাজার থেকে কেনা ক্রিম ব্যবহার করতে হবে না, যা অনেক সময় ত্বকের উপকারের চেয়ে ক্ষতিই বেশি করে।

এক্সফয়েলেশন বা মৃত কোষ পরিষ্কার করতে:
তেল দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করলে তা খুব ভালোভাবে মৃত কোষ পরিষ্কার করে। যেহেতু তেল ত্বককে খুব আলতোভাবে পরিষ্কার করে, তাই আপনার ত্বকে লাল ভাব একেবারেই আসবে না। আর আপনার ত্বক শুষ্ক ও হবে না।