ত্বকের র‍্যাশ দূর করে সতেজ রাখবে শসার এই স্প্রে

ঋতু বদলের এই সময়ে কখন গরম কখন বৃষ্টি। আবার সকালের ঠান্ডা বাতাস শীতের জানান দেয়। প্রকৃতির এই পরিবর্তনে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় ত্বক। এই সময় শরীরে নানা রকমের র‍্যাশ দেখা দেয়।shajghor_skin-rashসাধারণত সংবেদনশীল ত্বকে এই সমস্যা বেশি দেখা দেয়। র‍্যাশ দূর করার জন্য সাধারণত ক্রিম বা লোশন ব্যবহার করে থাকেন। র‍্যাশের সমাধানে ব্যবহার করতে পারেন শসার স্প্রে। শুধু র‍্যাশ দূর  করতে নয় এটি ত্বক সতেজ রাখতেও সাহায্য করবে।

যা যা লাগবে –
১টি শসার রস
১/২ চা চামচ লেবুর রস
১ চা চামচ অ্যালোভেরা জেল
১ টেবিল চামচ গোলাপ জল

যেভাবে তৈরি করবেন –
১। প্রথমে শসার খোসা ছাড়িয়ে কুচি করে নিন। এটি ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করুন।

২। শসার রসের সাথে একটি লেবুর রস এবং অ্যালোভেরার জেল মেশান।

৩। এর সাথে এক টেবিল চামচ গোলাপ জল মিশিয়ে নিন।

৪। মিশ্রণটি একটি স্প্রের বোতলে ভরে নিন।

৫। এটি ত্বকে দিনে তিনবার ব্যবহার করুন।

যেভাবে কাজ করে –
শসা ত্বকে একটি ঠান্ডা ভাব দেয়। এর ভিটামিন সি, ভিটামিন কে, ভিটামিন এ এবং স্যালিক উপাদান ত্বকে রোদে পোড়াভাব দূর করে, ত্বক হাইড্রেইড, ত্বকের মেলানিন নিয়ন্ত্রন করে।

লেবুর রস প্রাকৃতিক ব্লিচিং হিসেবে কাজ করে। অ্যালোভেরা ত্বকে নমনীয়তা ধরে রাখতে সাহায্য করে।

টিপস –
১। আপনি চাইলে এই ফেসিয়াল মিস্টটি ফ্রিজে রেখে দিতে পারেন এক সপ্তাহের জন্য।

২। এটি ত্বকে ব্যবহারের আগে ঝাঁকিয়ে নিন।

৩। অতিরিক্ত সংবেদনশীল ত্বকের ক্ষেত্রে লেবুর রস এড়িয়ে যাওয়া ভাল।

৪। প্রচুর পরিমাণ পানি পান করুন।

৫। ফেসিয়াল মিস্ট প্লাস্টিকের বোতলে ব্যবহার করুন।

৬। রোদে অবশ্যই ছাতা ও সানগ্লাস ব্যবহার করুন।

৭। সানস্ক্রিন লোশন মেখে সারা দিন থাকা যাবে না। ছয় বা সাত ঘণ্টা পরে মুখ ধুয়ে আবার সানস্ক্রিন লাগাতে হবে।

৮।  র‌্যাশ হলে নখ দিয়ে নাড়াচাড়া করা থেকে বিরত থাকুন।

৯।  র‌্যাশের পরিমাণ বেড়ে গেলে চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুন।

⇒ ভালো লাগলে প্লিজ বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন শেয়ার করতে √ এখানে ক্লিক করুন

লিখেছেন- নিগার আলম
তথ্যসুত্রঃ প্রিয় লাইফ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *