দ্রুত পেটের মেদ কমাবে ৩ টি দারুণ পানীয়!

গরমে একটু আরাম পাওয়ার জন্য আমরা বোতলজাত জুস ও সফটড্রিংকস পান করি। কিন্তু বোতলজাত জুসে অতিরিক্ত চিনি এবং সফটড্রিংকসের কেমিক্যাল বিশেষ করে পেটের মেদ বাড়ায় বেশ দ্রুত। আবার গরমে স্বস্তি পেতে পানীয় থেকেও দূরে থাকা সম্ভব নয়। তাহলে একটি কাজ করুন না, স্বাস্থ্যকর কিছু পানীয় পান করুন, যা আপনাকে গরমে দেবে স্বস্তি এবং সেই সাথে পেটের মেদ বাড়ানোর চাইতে দ্রুত কমাতে সহায়তা করবে।

১/ তরমুজের স্মুদি –
তরমুজের অ্যামিনো অ্যাসিড মেদ ঝরাতে অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান। অন্যান্য পানীয়ের পরিবর্তে ঘরে তৈরি করে পান করতে থাকেন খুব সহজ এই তরমুজের স্মুদি। শুধুমাত্র তরমুজ কেটে ব্লেন্ডারে সামান্য পানির সাথে ব্লেন্ড করে নিন। তরমুজে প্রাকৃতিক চিনি থাকে বলে বাড়তি চিনির প্রয়োজন নেই। যদি আপনি একটি মিষ্টি পছন্দ করেন তাহলে মিশিয়ে নিতে পারেন মধু। এই পানীয় পেটের মেদ দূর করতে বিশেষভাবে কার্যকরী।

২/ ডার্ক চকলেট শেক –
অনেকেই জানেন না ডার্ক চকলেট ওজন বাড়ায় না বরং ওজন কমাতে সহায়তা করে থাকে। প্রতিদিন একটু ডার্ক চকলেট খাওয়া মেদ কমানোর পাশাপাশি আরও নানা শারীরিক সমস্যা দূরে রাখে। চলুন জেনে নেয়া যাক কীভাবে বানাবেন ডার্ক চকলেট শেকঃ

– ৪ টি বরফের টুকরো, আধা কাপ দুধ, অর্ধেকটা পাকা কলা, ২ টেবিল চামচ মিষ্টি ছাড়া কোকো পাউডার ও ২ চা চামচ মধু একসাথে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। ব্যস, তৈরি আপনার ডার্ক চকলেট শেক।

৩/ আইসড মিন্ট টী –
পুদিনা পেটের মেদ কমাতে অনেক ভালো একটি উপাদান, এছাড়াও পুদিনার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আরও নানা ধরণের শারীরিক সমস্যা দূরে করতে সহায়তা করে। গরমে আরাম পেতে ও সেই সাথে পেটের মেদটা একটু কমিয়ে নিতে পান করতে পারেন আইসড মিন্ট টী।

– ৩-৪ কাপ পানিতে কয়েক দানা চা পাতা দিয়ে ১ মুঠো পুদিনা পাতা ও ১ ইঞ্চি আদা ছেঁচে দিয়ে জ্বাল করতে থাকুন। ভালো করে জ্বাল হয়ে গেলে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে নিন। চাইলে কিছুটা পানীয় দিয়ে বরফ তৈরি করে নিতে পারেন। এরপর একটি গ্লাসে মিন্ট টী ঢেলে সাথে এরই তৈরি বরফ বা সাধারণ বরফ দিয়ে পান করুন। মিষ্টি চাইলে মিশিয়ে নিতে পারেন মধু। সাথে মিশিয়ে নিতে পারেন কয়েক ফোঁটা লেবুর রস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *