নিতম্ব ও থাইয়ের মেদ ঝরিয়ে ফেলার ৫টি দারুণ সহজ উপায়!

গ্রামের মানুষের এমনিতেই শরীরচর্চা হয়ে যায়। শহরের বিষয়টা উল্টো। একদিকে ফাস্টফুড নির্ভরতা, অন্যদিকে হাঁটা বা পর্যাপ্ত শরীরচর্চার অভাব। এছাড়া ভুল ব্যায়ামের কারণেও কাঙ্খিত সাফল্য আসে না মেদ ঝরানোর ক্ষেত্রে।

আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে নিজেকে দেখেই বিরক্ত লাগে অনেকের। নিজেকে সুন্দর দেখাতে সবাই অতিরিক্ত চর্বি কমিয়ে ফেলতে চান। বিশেষ করে নিতম্ব ও থাইয়ের। আসুন জেনে নেই দ্রুত চর্বি কমানোর ৫টি বিষয়-

১। পানি :
পানির অপর নাম জীবন। প্রতিদিন ৮ থেকে ১০ গ্লাস পানি পান আপনাকে দেবে মানসিক প্রশান্তি। নিয়মিত পরিমিত পানি পান করলে আপনার শরীরের তাপমাত্রা ঠিক থাকবে, এছাড়া পানি খাদ্য বিপাকে সহায়তা করে। পরিমিত পানি পান আপনার নিতম্ব এবং থাইয়ের চর্বি কমাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করবে।

২। সাইক্লিং:
নিতম্ব ও থাইয়ের চর্বি কমাতে সাইক্লিং অতি জনপ্রিয় ও কার্যকর একটা ব্যায়াম। নিয়মিত সাইকেল চালান, না পারলে অচল সাইকেলের ওপর উঠে দ্রুত প্যাডেল ঘোরান। নিতম্ব ও থাইয়ের চর্বি কমে যাবে।

৩। যোগ ব্যায়াম:
প্রতিদিন যোগ ব্যায়াম অনুশীলনে আপনার সাতটি সমস্যা সমাধান হতে পারে। যোগব্যায়াম অনুশীলন আপানার শরীরকে সুস্থ ও সুন্দর রাখবে। শুধুমাত্র নিয়মিত অনুশীলনই আপানাকে যোগ ব্যায়ামের উপকারিতা দিতে পারে। যোগ ব্যায়াম ওজন কমাতে সহায়তা করে ও আপনাকে খুব সহজেই বুড়িয়ে যাওয়া হতে রক্ষা করে। এছাড়াও যোগব্যায়াম পেশীকে শক্ত ও ত্বক সুন্দর করতে সহায়তা করে।

৪। নারকেল তেল:
নারকেল তেল আপনার ম্যাসেজের জন্য খুবই উপকারি। নিতম্ব ও থাইয়ের চর্বি কমাতে হাতে নারকেল তেল নিয়ে প্রতিদিন ১০ মিনিট করে ম্যাসাজ করুন।

৫। কফি গ্রাউন্ড:
যদি আপনার শরীরের মেদ কমাতে চান তাহলে নিয়মিত চিনি ছাড়া কফি পান করুন। কফির অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরের মেদ কমাতে সাহায্য করে। কফিতে মধু মিশিয়ে খেলে ত্বক সুস্থ থাকে ও পেটের মেদ কমে যায়।