নিয়ম মেনে চুল আঁচড়ালে চুল পরা কমে যাবে ম্যাজিকের মত

অতিরিক্ত চুল পড়ছে, কিছুতেই নিয়ন্ত্রণ করতে পারছেন না? তাহলে জেনে রাখুন, আমাদের প্রতিদিন যত চুল পড়ে, তাঁর একটা বড় অংশ পড়ে কেবলমাত্র ভুল উপায়ে চুল আঁচড়ানোর ফলে। না বুঝেই এমন সব ভুল আমরা করি, যাতে চুলের ক্ষতি হয় মারাত্মক ভাবে। যেমন ধরুন, গোসল করার পর নিশ্চয়ই চুল আঁচড়ান আপনি? চুল পড়ার পেছনে এটিও একটি বড় ভূমিকা রাখে! আজ জেনে নিন ৫টি নিয়ম, যেগুলো মেনে চুল আঁচড়ালে চুল পড়া কমে যাবে ম্যাজিকের মত।

১/ চুল আঁচড়াবার জন্য কখনোই ব্রাশ কিংবা চিকন দাঁতের চিরুনী ব্যবহার করবেন না। মোটা দাঁতের, মাঝে ফাঁক ফাঁক সাধারণ প্লাস্টিকের চিরুনী ব্যবহার করুন। এটাই আপনার চুলকে ভালো রাখবে।

২/ ভাবছেন বেশী আঁচড়ালে চুল ভালো থাকবে?
এই ভুলটিও করতে যাবেন না। বেশী চুল আঁচড়ান মানে এই নয় ২০মিনিট ১ঘন্টা পর পর চুল আঁচড়াতে হবে। বেশি চুল আঁচড়ালে বরং চুলের ক্ষতি বাড়ে, দুর্বল চুল হলে পড়ার হারও। দিনে ২/৩ থেকে তিনবার চুল আঁচড়ালেই যথেষ্ট। আবার একেবারে চুল না আঁচড়েও থাকবেন না। চুল আঁচড়ালে মাথার ত্বকে রক্ত চলাচল বাড়ে। ফলে চুলের গোঁড়া মজবুত হয়। তবে হ্যাঁ, আঁচড়াবেন পরিমিত পরিমাণে ও তাড়াহুড়ো না করে হাতে সময় নিয়ে।

৩/ কখন চুল আঁচড়াবেন?
রাতে ঘুমাবার আগে চুল আঁচড়ে বেঁধে ফেলুন। সকালে বের হবার আগেও আঁচড়ে নিন। এছাড়া শ্যাম্পু করার আগে অবশ্যই চুল আঁচড়াবেন। এতে চুলে জট হবে না এবং প্রচুর চুল পড়ার হাত থেকে রক্ষা পাবেন।

৪/ গোসল করার পর কোন পরিস্থিতিতেই চুলে আঁচড়াবেন না। ভেজা অবস্থায় চুল থাকে নরম ও ভঙ্গুর, দ্রুত ভেঙে যায় চিরুনির ছোঁয়া পেলে। বিশেষ করে সোজা চুলে এই সমস্যা আরও অনেক বেশী।

৫/ গোসল করে বাইরে যাবেন, চুল আঁচড়ানো বা স্টাইল করা প্রয়োজন? তাড়াহুড়া না করে অপেক্ষা করুন। পুরোপুরি না হোক, অন্তত ৭৫ ভাগ শুকানোর পর তবেই চিরুনি লাগান চুলে।

টিপসঃ
কখনোই চুল জোরে আঁচড়াবেন না। এবং কখনোই চিরুনি দিয়ে চুলে ব্যাক কোম্ব করবেন না বা চুল ফুলাবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *