প্রান প্রিয় প্রেমিকার বাবার মনটি জয় করার গোপন ৫টি কৌশল

প্রেমিকাকে মন প্রান দিয়ে ভালবাসলেও প্রেমিক পুরুষেরা প্রেমিকার বাবার কথা মনে করে পিছিয়ে পড়েন অনেক সময়ই। মূলত, ছেলেদের মনে এক ধরণের ভীতি কাজ করতে থাকে, ‘আমাকে পছন্দ করবে তো’, ‘রিজেক্ট করে দেবেন না তো’ আর সব চাইতে মজার যে কথা মনে করেন তা হচ্ছে, ‘মার খেতে হবে না তো’। তা সে যাই হোক না কেন, একটু কৌশল খাটালেই কিন্তু বেশ সহজে জিতে নেয়া যায় প্রান প্রিয় প্রেমিকার বাবার মনটি। জানতে চান কীভাবে? চলুন শিখে নেয়া যাক কৌশলগুলো।

১/ প্রেমিকার বাবার Girlfriend’s parents মন জিতে নেয়ার প্রথম ও প্রধান কৌশল হলো পরিপাটি ভাবে তার সামনে যাওয়া। এমন ভাবে প্রেমিকার বাবার সামনে যাবেন যেনো আপনাকে দেখে অন্তত বড় চাকুরে পুরুষ লাগে। ছেঁড়া জিন্স আর কুঁচকে যাওয়া শার্ট প্রেমিকার চোখে যতোই আপনাকে হিরো করুক না কেন, প্রেমিকার বাবার চোখে আপনি একেবারেই যোগ্য মনে হবেন না। তাই নিজেকে সেভাবে প্রস্তুত করে নিন।

২/ খুবই নম্র, ভদ্র এবং মান্যার জানা ছেলে অভিভাবকের চোখে পারফেক্ট মেয়ের জামাই হতে পারে। তাই নিজের আদব কায়দা, মান্যার এবং নম্র ব্যবহার ঝালিয়ে নিন প্রেমিকার বাবার সামনে উপস্থিত হওয়ার আগে।

৩/ প্রেমিকার বাবার সামনে মুখ বন্ধ করে বসে থাকবেন না। বাবারা আর যাই হোন না কেন একেবারে গম্ভীর কথা না জানা মেয়ের জামাই পছন্দ করেন না। অনেক বাবাই এমন জামাই পছন্দ করেন জার সাথে বসে খোলামেলা আড্ডা দিতে পারবেন, পলিটিক্স, বিশ্ব এবং খেলাধুলা নিয়ে দুটো কথা বলতে পারবেন।

৪/ প্রেমিকার বাবার সামনে নিজের লক্ষ্য এবং নিজের সফলতা ফুটিয়ে তুলুন একেবারে পরিষ্কারভাবে। যদি খুব সফল নাও হয়ে থাকেন আপনার ভবিষ্যতের চিন্তাভাবনা এবং আপনার মানসিকতাও কিন্তু জিতে নিতে পারবে আপনার প্রেমিকার বাবার মন। নিজের ও নিজের স্ত্রীর ভবিষ্যতের নিরাপত্তা প্রকাশ করে এবং ভাবে নিজেকে প্রস্তুত করে নিন।

৫/ হামবড়া ভাব করে ফেলবেন না। নিজের লক্ষ্য, সফলতা এবং পরিকল্পনা বলতে গিয়ে আপনার নিজের হামবড়া ভাব প্রকাশ করে ফেলবেন না। আপনিই সব করেছেন এই ধরণের কথা অনেক নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে আপনার হতেও পারে শ্বশুরটির মনে। তাই একটু বুঝে শুনেই কথা বলুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *