ফেলনা ডিমের খোসার অসাধারন কিছু ব্যবহার

ডিমের খোসা আমাদের কাছে ফেলে দেয়ার মতোই আবর্জনা। কিন্তু ডিমের খোসা ততোটা ফেলনা নয় যতোটা আমরা মনে করে থাকি। মূলত ডিমের খোসার ব্যবহার আমরা অনেকেই জানি না, আর এ কারণেই ডিমের খোসাকে আমাদের কাজে অকাজেরই মনে হতে থাকে। কিন্তু এই ফেলনা ডিমের খোসার আসলেই অনেক কার্যকরী ব্যবহার রয়েছে। জানতে চান ব্যবহারগুলো? চলুন জেনে নেয়া যাক।

১) ত্বকে বয়সের ছাপ প্রতিরোধ করে
অবিশ্বাস হলেও সত্যি যে, ডিমের খোসার রয়েছে ত্বক থেকে বয়সের ছাপ দূর করে ত্বকে তারুণ্য ধরে রাখার দারুণ ক্ষমতা। শুকনো ডিমের খোসা ভালো করে গুঁড়ো করে নিয়ে ডিমের সাদা অংসের সাথে মিশিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করে ত্বকে ভালো করে লাগান। শুকিয়ে গেলে ত্বক ভালো করে ধুয়ে মুছে নিন। ফলাফল নিজেই টের পাবেন।

২) ডিমের খোসা দারুণ পরিষ্কারক
ডিমের খোসা egg shell গুঁড়ো করে এতে সাধারণ হাড়ি পাতিল ধোয়ার ডিটারজেন্ট মেশানো পানির সাথে মিশিয়ে নিন। দেখবেন আগের চাইতেও বেশ ভালো করে অল্প পরিশ্রমেই পরিষ্কার করতে পারছেন সবকিছু। এছাড়াও ঘরের অন্যান্য দৈনন্দিন আসবাবপত্র যা সাবানপানি দিয়ে ধোয়া যায় সেগুলোতেও একই পদ্ধতি ব্যবহার করে দেখুন কতোটা কার্যকরী।

৩) পোকামাকড় দূরে রাখে
অনেকেরই বাগান করার শখ রয়েছে, কিন্তু পোকামাকড়ের যন্ত্রণায় এই শখ পূরণ হয় না ভালো করে। বাগানে ডিমের খোসা ছড়িয়ে রাখুন, দেখবেন পোকামাকড়ের যন্ত্রণা থেকে অনায়েসেই মুক্তি পাচ্ছেন। কারণ পোকামাকড় ডিমের egg গন্ধ সহ্য করতে পারে না। এছাড়াও ডিমের খোসা মাটির উর্বরতা বাড়ায়।

৪) পোষা প্রাণীর হাড় মজবুত করে
অনেকেই বাসায় কুকুর বা বেড়াল পালেন। এই পোষা প্রাণীগুলোর স্বাস্থ্যের জন্য ডিমের খোসা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। ডিমের খোসায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম। পোষা প্রাণীর খাবারের সাথে ডিমের খোসা egg shell মিশিয়ে দিলে প্রাণীর হাড় মজবুত হয়।

৫) গাছের চারার সঠিক পুষ্টি
অনেকেই শখ করে নানা ফলের গাছ লাগাতে চান। কিন্তু বীচি থেকে গাছের অঙ্কুরোদগমের পদ্ধতিটি সঠিকভাবে না হওয়ার কারণে সমস্যা হয়। এক কাজ করুন, এরপর ডিম ভাঙার সময় খোসা এমনভাবে ভাঙুন যেন উপরের খানিকটা অংশ ভাঙে। বাকি অংশ ফেলে না দিয়ে এতে মাটিসহ বীচি লাগিয়ে দিন। ডিমের খোসার egg shell ক্যালসিয়াম সঠিকভাবে চারা উৎপাদন করবে।

৬) ত্বকের চুলকানি বন্ধ করতে
অনেকেরই ত্বকের চুলকানি Itching of the skin সংক্রান্ত নানা সমস্যা থাকে। এই ধরণের বিরক্তিকর সমস্যার সমাধানও করতে পারে ডিমের খোসা। একটি ডিমের খোসা আপেল সিডার ভিনেগারে ডুবিয়ে রাখুন ২-৩ দিন। এরপর এই মিশ্রণটি ত্বকে লাগান। ত্বকের চুলকানি সংক্রান্ত সমস্যা দূর হয়ে যাবে

One comment

  1. Hairfall solution

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *