বিয়ের ৭ দিন আগে থেকেই যে কাজগুলো বন্ধ রাখবেন

বিয়ের দিন প্রতিটি নারী ও পুরুষের জন্যই একটি বিশেষ দিন। এই বিশেষ দিনটিতে যেন অনেক সুন্দর দেখায়, সেই চেষ্টাই করে থাকেন সকলে। জিমে যান, চুলের যত্ন, ত্বকের যত্ন বিভিন্ন রূপচর্চা করেন, অনেকে আবার কীভাবে দাম্পত্য জীবনে সুখী হওয়া যায় তার জন্য বিশেষ কাউন্সিলিং এর ব্যবস্থা নিয়ে থাকেন। কিন্তু যত যাই করুন না কেন, এমন কিছু কাজ আছে যা বিয়ের ঠিক এক সপ্তাহ আগে থেকেই করা বন্ধ করতে হবে। চলুন জেনে নিই বিষয়গুলো_

চুল কাটবেন না –
বিয়ের আগ মুহূর্তে কখনোই চুল কাটবেন না, বিশেষ করে নারীরা। অনেক নারীরাই মনে করেন চুল কাটব কিন্তু ঠিক বিয়ের কয়েকদিন আগে। আপনার চুল যেমন আছে যতটুকু আছে তেমনই থাকতে দিন কারণ অনুষ্ঠানের দিন অবশ্যই আপনাকে চুল বাঁধতে হবে সুন্দর করে, আর চুল কেটে ফেলার কারণে যদি তা সম্ভব না হয় তখন আপনারই মন খারাপ হবে।

চুলে কালার করা থেকে বিরত থাকুন –
বিয়ের নারীরা চুলে কালার করে থাকেন, সৌন্দর্যে একটু ভিন্নতা আনার জন্য, কিন্তু বিয়ের ঠিক আগ মুহূর্তে চুল কালার করলে তাতে আপনাকে ভালো না দেখাতেও পারে। কিংবা কোন কারণে আপনার মন মতো রং টি চুলে নাও আসতে পারে, মানে আপনি যেমন চাচ্ছেন তেমন টা নাও হতে পারে। তখন অনুষ্ঠানের দিন আপনারই মন খারাপ হবে। তাই কালার না করে মেহদী দিতে পারেন।

ভিন্ন ধর্মী হেয়ার কাট –
অনেক নারীরাই মনে করেন সামনে যেহেতু বিয়ে একটু ভিন্ন ধরণের হেয়ার কাট দেই। ভিন্ন বলতে সামনে ব্যংস, আন ইভেন হেয়ার কাট, শর্ট লেয়ার, শর্ট ভলিউম, ইমো হেয়ার কাট ইত্যাদি। এই ধরণের হেয়ার কাট দিলে আপনার চুলের ধরণই পাল্টে যাবে। যখন চুল বাঁধতে যাবেন দেখবেন নিজের পছন্দমত চুল বাঁধা হচ্ছেন না। তাই অনুষ্ঠান শেষ হয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

নতুন কোন ব্যেয়াম –
সামনে বিয়ে বলে আপনি জিমে যাচ্ছেন, বেশ কয়েক মাস ধরে একই ব্যায়াম করছেন যা আপনার শরীরের সাথে মানিয়ে গেছে। কিন্তু বিয়ের কয়েকদিন আগে যদি আপনি নতুন কোন ব্যায়াম করা শুরু করেন তাতে আপনার দেহের ক্ষতি হতে পারে। যেহেতু নতুন ব্যায়াম করবেন তা আপনার শিখতেও সময় লাগবে এবং কোন কারণে মাংস পেশি কিংবা রোগে টান লাগতে পারে। যা খুব সাধারণ মনে হলেও সাধারণ নয়। এর কারণে আপনি অসুস্থ হয়ে যেতে পারেন।

রূপচর্চায় পরিবর্তন আনা –
বিয়ের দিন যেন সুন্দর দেখায় তার জন্য অনেক রূপচর্চা করেছেন। এবং সব মিলিয়ে আপনি বিয়ের আগে একেবারেই প্রস্তুত। কিন্তু কোন কারণে আপনার মনে হল যে অন্য কোন রূপচর্চার টিপস পালন করে দেখি কেমন হয়! যখনই করতে গেলেন তার ফল সরূপ ত্বকে দেখা দিল ব্রনের উৎপাত। এমনটা হতেই পারে। তাই সাবধান থাকুন বিয়ের আগে নতুন কিছু জিনিস ত্বকে ব্যবহার করার সময়।

ডায়েটের খাবার এড়িয়ে যাবেন না –
ভাবছেন আর এক সপ্তাহ আছে বিয়ের, ফিট তো আছিোন…. ডায়েট করা বন্ধ করে দিই। কিন্তু আপনি হয়তো জানেন না যে হঠাৎ করেই ডায়েটে পরিবর্তন আসলে আপনি অসুস্থ হতে পারেন, ২/৩ দিনে আপনার ওজন বাড়তে পারে। তাই ডায়েট মেন্যু হতে নিজেকে দূরে না রাখাই ভালো হবে। ফিট থাকা তো শুধু বিয়ের দিনের জন্য নয় ফিট থাকতে হবে সবসময়।

ঘুমকে বিদায় –
স্বাভাবিক ভাবেই বিয়ের আগের সময়গুলোতে দুশ্চিন্তা, কেনাকাটা, বাসা ভর্তি মেহমান, হৈ চৈ এর জন্য ঘুম হয় না। কিন্তু তাই বলে ঘুমকে কোন ভাবেই বিদায় দেয়া যাবে না। কারণ ঘুম এমন একটি বিষয় যা দেহকে সুস্থ রাখবে এবং আপনার বিশেষ দিনটিতে দেখাবে সুন্দর ও প্রানবন্ত।
তথ্যসুত্রঃ প্রিয়.কম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *