ভাঙ্গা সম্পর্ক জোড়া লাগানোর ৫টি উপায়

একটা মধুর সম্পর্কে একবার ফাটল ধরলে তা জোড়া লাগানো অনেক কষ্টকর। একটা ভাঙ্গা সম্পর্ক নতুন করে গড়ে তুলতে যেটা দরকার তা হলে সময়ের সাথে ধৈর্যর দরকার। মনোবিদরা বলছেন, ৫টা জিনিস করলে আর দুপক্ষ নিজেদের গোঁ ধরা ভাসিয়ে দিতে পারলেই কিন্তু ভেঙে যাওয়া কাঁচ জোড়া লাগানো সম্ভব। ভাঙ্গা সম্পর্ক জোড়া লাগাতে আজই নিচের ৫টি উপায় প্রয়োগ করে দেখতে পারেন-১। বেশি বেশি দেখা করুন, কথা বলুন:
আরে বাবা, কী হবে না হবে এসব ভুলে একবার ফোনটা করেই দেখুন না। একে অপরের সঙ্গে যতটা বেশি কথা বলবেন, দেখবেন সব সহজ হয়ে যাচ্ছে। অতীতে যে যে কারণে ভাঙন ধরেছিল সেগুলো শুধরাতে কথা বলা সাহায্য করবে। তবে হ্যাঁ, যখন কথা বলবেন নিজের পুষে রাখা রাগগুলো সব ঝেড়ে কাষবেন একে অপরের সামনে। কিন্তু দোষ ধরা যাবে না। আসলে পরিস্থিতি যাতে আরও ঘোলাটে না হয়, তার জন্যই তো সাহস করে কথা বলে উঠতে পারেননি। তাই নিজের ইগোগুলোকে পাশে রেখে এসে কথা বলুন দেখা করুন।

২। সময় দিন:
নতুন করে পুরনো সম্পর্ক ফিরে পেতে যেটা দরকার একটু বেশি মনোযোগী হওয়া, সম্পর্কটা নিয়ে। ট্যাগ লাইন হতে পারে- ‘সম্পর্ক সারাতে সময়`। পেশাদারিত্ত আর উদাসীনতা দূরে সরিয়ে মন দিন আপনার সঙ্গীর প্রতি। কাজের ফাঁকে এক আধটা এস এম এস। কিংবা হঠাৎ অফিস থেকে ফিরে সিনেমায় চলে যাওয়া। এই সব। বিস্তারে বলার দরকার আছে কী? আপনার সঙ্গীকে ছাড়া যেতে হবে এমন সব সামাজিক অনুষ্ঠান কদিন বাদ দিনতো।

৩। ডেটিং বৃদ্ধি করুণ:
ডেটিংয়ে যান। একবার যদি বুঝতে পারেন এর ওর পেছনে ছোটার থেকে দুজনে একসঙ্গে থাকলেই নিরাপদ। তাহলেই দেখবেন ধীরে ধীরে সব স্বাভাবিক হচ্ছে। সেক্ষেত্রে কার্যকরি হতে পারে ডেটিংয়ে যাওয়া। আপনার শহরের অচেনা জায়গায় ঘুরে আসতে পারেন দুজনে। সম্পর্কের একঘেয়েমি কাটাতে এগুলো সাহায্য করবে।

৪। ঘনিষ্ঠতা:
মনবিদরা বলছেন, মনের কথা, একান্ত ঘনিষ্ট হওয়া এসব দুজনের মধ্যে হারিয়ে যাওয়া সম্পর্কে ভাঙন ধরানোর জন্য মূল অভিযুক্ত। মনোবিদদের মতে, যত বেশি শারীরিক সম্পর্ক স্থাপিত হবে ততো দুজনের মধ্যে একাত্মতা বাড়বে। যদি সম্পর্ক ফিরে দাঁড় করাতে হয়, তাহলে সময় এবার নিজেদের যৌন জীবন নিয়ে একটু বেশি ভাবার।

৫। শোনার ধৈর্য তৈরি করুন:
একতরফা বকবক নয়। এবার একটু শোনার মানসিকতা তৈরি করুন। আপনি যদি চান আপনাকে সে গুরুত্ব দিক, তাহলে প্রয়োজন আপনারও তাঁকে একটু বেশি গুরুত্ব দেওয়া। আপনার একতরফা বয়ান বার্তা শুরু করার আগে প্রয়োজন সে কী বলতে চায় সেটা শোনার। ও একটু বোঝার। তার কী মত সেটা না জেনেই একতরফা ফয়সালা শোনানোর গোঁ থাকলে ত্যাগ করতে হবে সেটাকেও। আপনার মনের যে সব কৌতুহল, সময় দিলে দেখবেন আপনার সঙ্গী ধীরে ধীরে তার উত্তর দিতে শুরু করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *