ভালো ভাবে কান পরিষ্কার করার সঠিক কৌশল

আমাদের শরীরের গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ হল কান। নিয়মিত কান পরিষ্কার না করার কারণে হতে পারে অনেক মারাত্নক কোন রোগ। আমরা সাধারণত কটন বাড বা তুলা দিয়ে কান পরিষ্কার করে থাকি। কিন্তু এভাবে কান ভালমত পরিষ্কার Clean হয় না। কান সঠিকভাবে পরিষ্কার করার জন্য আছে কিছু উপায়। ঘরোয়া এই উপায়গুলো দিয়ে খুব সহজে কান পরিষ্কার করা সম্ভব।


→ কানে ময়লা জমার লক্ষণ
→ কানে ব্যথা
→ মাথা ঘোরা
→ চুলকানি
→ কানের ভিতর অদ্ভুত কোন আওয়াজ হওয়া
→ বাজে গন্ধ কান থেকে বের হওয়া।

১। গরম পানি –

– গরম পানি আপনার কানের ময়লা নরম করে বের করে ফেলতে সাহায্য করে থাকে। তবে খেয়াল রাখবেন পানি যেন পরিষ্কার হয় এবং খুব বেশি গরম না হয়।

– প্রথমে পানি Water কুসুম গরম করে নিন।

– তারপর মাথার একপাশে কাত করে আস্তে আস্তে করে গরম পানি ঢেলে দিন। খুব বেশি পরিমাণে পানি একসাথে ঢালবেন না।

– এভাবে মাথা কত করে এক মিনিট থাকুন।

– তারপর পরিষ্কার একটি কটনবাড দিয়ে কানের ভিতর থেকে ময়লা বের করে ফেলুন।

– দেখবেন খুব সহজে কানের ময়লা বের হয়ে আসছে।

২। বেবি অয়েল –

বেবি অয়েল কানের ময়লা পরিষ্কার করতে অনেক বেশি কার্যকরী।

– একটি ড্রপারে বেবি অয়েল নিন।

– তারপর কয়েক ফোটা তেল আস্তে আস্তে কানের ভিতরে দিয়ে দিন।

– একটি তুলার বল কানের খোলা অংশে রাখুন যাতে তেল ভিতর থেকে বের না হয়ে যায়।

– ১-২ মিনিট পর তুলার বলটি সরিয়ে ফেলুন।

– অতিরিক্ত তেল বের করার জন্য আপনি মাথার বিপরীত দিকে কাত করুন।

– কানের ear ভিতর তেল থাকলে একটি পরিষ্কার নরম কাপড় দিয়ে পরিষ্কার করে ফেলুন।

৩।  লবণ পানি –

ঘরোয়াভাবে খুব সহজে কানের ময়লা পরিষ্কার করার উপায় হল লবণ পানি। এটি  কানের ময়লা নরম করে সহজেই কানের ear ভিতর থেকে ময়লা বের করে দিয়ে থাকে।

– প্রথমে আধা কাপ কুসুম গরম পানির সাথে এক চা চামচ লবণ মিশিয়ে নিন।

– একটি তুলোর বল লবণ পানিতে ভিজিয়ে নিন।

– তারপর মাথার এক পাশে কাত করে কান থেকে একটু দুরুত্ব রেখে তুলো থেকে চিপে পানি কানে ear দিয়ে নিন যেন আস্তে আস্তে কানের ভেতরে পানি যায়।

– মাথা কাত করা অবস্থায় ৩-৪ মিনিট থাকুন।

– এরপর কটনবাড দিয়ে কান পরিষ্কার করে ফেলুন।

– একই ভাবে অন্য পাশের কানেও পরিষ্কার করুন।

তথ্যসুত্রঃ প্রিয় লাইফ