যে ৪টি লক্ষণে বুঝবেন আপনার প্রেমিকা লোভী

প্রেমের শুরু থেকেই হিমশিম খেতে হচ্ছে। কিছুতেই কুলিয়ে উঠতে পারছেন না। প্রেম করা এতো খরচের ব্যাপার জানলে এই পথে পা বাড়াতেন না কখনোই! অনেক প্রেমিকেরই অভিযোগ যে তাদের প্রেমিকার কারণে অতিরিক্ত খরচ হয় তাদের। কিন্তু এমনটা কেন হয়? তাহলে কি আপনার প্রেমিকা লোভী? জেনে নিন ৪টি লক্ষণ যেগুলো মিলে গেলে নিশ্চিত হবেন যে আপনার প্রেমিকা লোভী।


১. দোকানে গিয়ে সবচাইতে দামীটা পছন্দ করে –
আপনার প্রেমিকাকে নিয়ে শপিং এ যেতে ভয় পাচ্ছেন? দোকানে গেলেই ভালো হোক আর খারাপ হোক, সবচাইতে দামী জিনিসটিই তার চাই? অধিকাংশ ক্ষেত্রে এধরণের প্রেমিকারা পুরোপুরি প্রেমিকের খরচেই চলে। এই ধরণের নারীদের থেকে দূরে থাকাই ভালো।

২. সঞ্চয়ের কথা বলে না –
আপনার প্রেমিকা যদি আপনাকে সঞ্চয়ের ব্যাপারে একেবারেই উৎসাহিত না করে এবং ক্রমাগত প্রয়োজনীয় খরচ করতে উৎসাহিত করে তাহলে বুঝে নিন আপনার প্রেমিকা আপনার সাথে ভবিষ্যৎ কাটাতে চায় না। কারণ আপনার প্রেমিকা যদি আপনার সাথে ঘর বাঁধার পরিকল্পনা করে থাকে তাহলে অবশ্যই সে চাইবে যে যেন আপনি ভবিষ্যতের জন্য সঞ্চয় করা শুরু করেন।

৩. কারণে-অকারণে টাকা চেয়ে নেয়
আপনার প্রেমিকা যদি আপনার কাছ থেকে কারণে অকারণে সব সময়েই বেশ বড় অংকের টাকা নিয়ে ফেলে তাহলে আপনার উচিত আপনার সম্পর্কের ব্যাপারে ভেবে দেখা।

৪. সারাক্ষণ আপনার আয় নিয়ে খোঁচা মারে –
আপনার প্রেমিকা কি আপনার পকেটের টাকা কিংবা আপনার আয় নিয়ে প্রতিনিয়তই কটু কথা শোনায়? যদি আপনি এরকম পরিস্থিতির স্বীকার হয়ে থাকেন তাহলে আপনার প্রেমিকাটি লোভী। কারণ শুধু মাত্র অর্থস্বল্পতার কারণে আপনার প্রেমিকা আপনার ভালোবাসাকে ছোট করে দেখছে এবং আপনাকে অপমান করছে।

বিঃ দ্রঃ আপুরা ভুল বুঝবেন নাহ। সচেতন হোন আজ থেকেই যেন কেউ আপনাকে বলতে না পারে আপনি লোভী। সব সময় মাথায় রাখুন যেন আপনার সঙ্গী তার বন্ধু বান্ধবকে বুক ফুলিয়ে বলতে পারে সে আমার টাকা বা অর্থকে ভালোবাসে নাহ সে আমাকেই ভালোবাসে।