যৌন নির্যাতন থেকে বাঁচতে জেনে নিন ৭টি বিষয়!


আজকাল নারীর জন্য পৃথিবীটা ক্রমশ অনিরাপদ হয়ে উঠছে। পত্রিকার পাতা খুললেই চোখে পড়ে, বিশেষ করে নারীকে যৌন নিপীড়ন, অপহরণ, ধর্ষণ, ধর্ষণের পর হত্যা ইত্যাদি যেন চূড়ান্ত মাত্রা ধারণ করেছে। এসব ছাড়াও মোবাইল বা লুকানো ক্যামেরায় ছবি ধারণ করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। প্রেমের নামে অন্তরঙ্গ হয়ে পরে ব্ল্যাকমেইল করছে অনেক পুরুষ। কেবল বাইরে কেন, নারী আজকাল নিরাপদ নয় নিজের ঘরেও। নিজের মামা, চাচা, খালু, ফুফা থেকে শুরু করে নিজের স্বামী, বাবা বা ভাইয়ের হাতেও যৌন নির্যাতনের শিকার হচ্ছে নারীরা। এমন অবস্থায় কী করবেন? জেনে রাখুন নিজেরই নিরাপত্তার জন্য এই ৭টি বিষয়।

১/ রাত বিরাতে একা ঘোরাঘুরি করবেন না। হ্যাঁ, বিষয়টি আপনার স্বাধীনতার খর্ব হওয়া। হয়তো আপনার অনেক বান্ধবীই রাতের বেলা শপিং বা আড্ডা দিতে যান। কিন্ত আপনার যদি গাড়ি না থাকে এবং রিকশা/সি এন জি/বাসে আপনাকে চলাচল করতে হয়, তাহলে রাত বিরাতে একা বাইরে থাকার ঝুঁকি কখনোই নেবেন না। সাথে অন্তত একটি মানুষ থাকলেও আপনি খানিকটা নিরাপদ।

২/ “পেপার স্প্রে” নামে একটি জিনিস মার্কেটে পাওয়া যায়। যা আসলে মূলত মরিচের স্প্রে। এই জিনিস একটি কিনে অবশ্যই ব্যাগে রাখুন আপনার প্রয়োজন হোক বা না হোক। কখন কোনটা কাজে লেগে যায় কিছুই বলা যায় না। এই স্প্রে কারো চোখে লাগলে সে সাময়িক ভাবে অন্ধ হয়ে যাবে আর সেই সুযোগে আপনি পালাতে পারবেন।

৩/ যতক্ষণ বাড়ির বাইরে থাকবেন, অবশ্যই পরিবারের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করুন। কখন কোথায় যাচ্ছেন আর কতক্ষণে ফিরবেন, সেটা বাড়ির সবাইকে জানিয়ে রাখুন। যেন আপনার দেরি হলে বা খোঁজ পাওয়া না গেলে পরিবার থেকে ব্যবস্থা গ্রহণ সম্ভব হয়। মোবাইলের স্পিড ডায়ালিং-এও পরিবার ও কাছের মানুষ সবার নম্বর রাখুন।

৪/ একটা জিনিস মনে রাখবেন, যতই ক্লোজ ফ্রেন্ড বা ভালোবাসার মানুষ হয়ে থাকুক না কেন, কোণ পুরুষের সাথে একা একা কোথাও চলে যাবেন না। কারণ কার মনে কী আছে বলা যায় না, প্রেম বা বন্ধুত্বের নামে প্রতারণা হতে কতক্ষণ? শুধু যে একলা কোথাও যাবেন না তাই নয়, কখনো অন্তরঙ্গ বা আপত্তিকর এমন ছবি তুলবেন না যা অন্য কেউ দেখলে লজ্জায় পড়তে পারেন আপনি। ফেসবুক facebook বা মোবাইল mobile  ফোনের মাধ্যমে পরিচয় এমন কাউকে তো বিশ্বাস করার প্রশ্নই ওঠে না।

৫/ আপনি কী পরবেন, আপনার পোশাক কেমন হবে সেটা একান্তই আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার। তবে আপনাকে যদি পাবলিক ট্রান্সপোর্টে চলাচল করতে হয় প্রতিদিন, তাহলে মনে রাখবেন যে এমন কোণ পোশাক পরবেন না যা আমাদের সংস্কৃতির সাথে যায় না। আমাদের সমাজের সাথে মানিয়ে যায় বা আপনাকে দৃষ্টিকটু না দেখায় এমন পোশাক পরুন। তাতে আজেবাজে লোকেদের দৃষ্টি আকর্ষিত কম হবে। এই সমাজে নিজেকে নিরাপদ রাখতে এটুকু কম্প্রোমাইজ করা ছাড়া উপায় নেই।

৬/ কেউ নিকট আত্মীয় বলেই তাঁকে চোখ বুজে বিশ্বাস করতে যাবেন না। নিজে এবং নিজের বাড়ির সকল মেয়ে শিশুদের ব্যাপারে খুবই সচেতন থাকুন। আজকাল ছোট ছোট মেয়েদের ধর্ষণ করার অসুস্থতা মহামারির মত ছড়িয়ে পড়েছে। তাই খুব বেশী সাবধান থাকুন।

৭/ একটা জিনিস মনে রাখবেন, যৌন sex নিপীড়নের ব্যাপারে কখনো মুখ বন্ধ করে রাখবেন না। আমরা অনেক সময়েই কর্মক্ষেত্রে বা পরিবারের নিতক আত্মীয় দ্বারা হরেক রকমের যৌন নিপীড়নের শিকার হই। আজ যে আপনাকে উত্যক্ত করছে, কাল সে সাহস পেয়ে আরও খারাপ কাজ করতে দ্বিধা করবে না। তাই অতি অবশ্যই মুখ বুজে নিপীড়ন সহ্য করবেন না।

সুত্রঃ প্রিয় লাইফ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *