শরীরের অনাবশ্যক মেদ ঝরানোর সহজ টিপস!

মোটা হয়ে যাচ্ছেন। ডায়েট করেও কাজ হচ্ছে না। ডায়েট না করেই শরীরের অনাবশ্যক মেদ ঝরানোর কিছু সহজ টিপস জেনে নিন।
শরীরে অনাবশ্যক মেদ নিয়ে অতিষ্ট অনেকেই। নিজেকে নির্মেদ রাখতে অনেকেই আশ্রয় নেন ডায়েটের। খাওয়া দাওয়া কমিয়ে ফেলে শুরু হয় মেদ ঝরানোর সাধ্য সাধনা। নতুন চিকিৎসা বিজ্ঞান বলছে, ডায়েট না করেই ওজন কমানো যায়।

কিন্তু কীভাবে?

চিবিয়ে খাওয়ার সময় বাড়ান –
চিকিত্‍সকেরা বলছেন বেশিক্ষণ চিবিয়ে খেলে খাদ্য থেকে শরীরে ক্যালরির পরিমাণ কম যায়। খাদ্য পরিপাকও ভাল হয় এতে। ভাত,রুটি খাওয়ার জন্য আধঘণ্টা সময় দিন।

ব্রেকফাস্ট মাস্ট –
খাদ্য তালিকায় ব্রেকফাস্ট রাখতেই হবে।  দিনের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ খাবার ব্রেকফাস্ট না করা  মানেই দীর্ঘক্ষণ খালি পেটে থাকা। এতে  শরীরের হজমের প্রক্রিয়া ব্যাহত হয়।

যা খাচ্ছেন তাতেই মন দিন –
খাবার খাওয়ার সময় কেউ  টিভি দেখেন। কেউ  বই পড়েন। এরফলে কী পরিমাণ খাবার আপনি খাচ্ছেন তা সম্পর্কে খেয়াল থাকে না। মন শুধু খাবারেই দিন। ডায়েটে কাজ দেবে।

এক রান্না বারবার গরম করবেন না –
এক রান্না বারবার  গরম করলেই তার খাদ্যগুণ কমে যায়। মাইক্রোওয়েভে খাবার গরম করলেও খাদ্যগুণ কমে যায়।

ভারি খাবারের আগে ফল খান –
লাঞ্চ বা ডিনারের ৩০ মিনিট আগে ফল খান। ফল পরিপাকে সাহায্য করে।খাবার আগে ফল শরীরের ওজন কমাতে দারুন সাহায্য করে।

বার বার খাবার খান –
একবারে পেট ভর্তি না করে, কিছুটা খালি পেট রাখুন। দু ঘণ্টা বা তিন ঘণ্টার ব্যবধানে খাবার খান। এতে পরিপাক ক্রিয়া বাড়ে। খাবার হজম হয় ভাল।

৮টার মধ্যে রাতের খাওয়া –
বেশি রাতে খাবার খাওয়ার অভ্যাস ছাড়তে হবে। চেষ্টা করুন রাত আটটার মধ্যেই রাতের খাওয়া সেরে ফেলতে।

খাবার ১৫মিনিট আগে জল খান –
অনেকেরই অভ্যাস রয়েছে খাবার খেতে খেতেই জল খাওয়ার। খাবার খাওয়ার মাঝখানে জল খাওয়ার অভ্যাস পরিপাকে সমস্যা তৈরি করে। তৈরি হয় অ্যাসিডিটি। যদি খুবই জল খাওয়ার প্রয়োজন হয় তবে অল্প জল খান,শুধু গলা ভেজানোর মত।

এই কয়েকটি নিয়ম মানলেই ডায়েট ছাড়াই আপনি শরীর ঝরঝরে রাখতে পারবেন। শরীরে জমবে না বাড়তি মেদ।

→ উপকারি হলে প্লিজ বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন শেয়ার করতে √ এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *