সবার সতীত্বে ভেজাল, কাকে বিয়ে করবেন?

কাকে বিয়ে করবেন? শতকরা ৫ জন ছেলে/মেয়ে খুঁজে পাওয়া যাবে না, যারা বাসর রাত্রে স্বামীর হাতে হাত রেখে বা স্ত্রীর হাতে হাত রেখে এই কথাটি স্বামী/স্ত্রীকে সত্যি করে বলতে পারবে যে, আমার যৌবনে কলংকের কোনো দাগ লাগে নাই।


আমি তোমাকে এমন একটি দেহ আজ উপহার দিলাম, যেই দেহতে অতীত জীবনে কোনো পর পুরুষের হাত লাগে নাই। পুরুষের অবস্থাও তাই! কোন পুরুষ ও জোড় গলায় বলতে পারবে না যে, আমি কোন মেয়ের কলংকে দাগ লাগাই নাই।

প্র্যাকটিস খেলা হয়ে যায় বিয়ের আগেই! হাজার হোক পুরুষতো! বাঙ্গালী সমাজে আবার পুরুষের সব কিছু মাফ! ও ভাইসাব, এখানে মাফ পেতে পারেন আল্লাহ্‌র কাছে পাবেন না! তবে ভয়ের কিছু নেই … আপনি ঠিক যেরকম আপনার লাইফ পার্টনার ও ঠিক তাই ই হবে!

আপনি অসতী মেয়ে আর আপনার স্বামী পবিত্র হাজী সাহেব এমনটা কখনোই নয়! হ্যাঁ তবে সবকিছু জেনে শুনে নিয়ে দু-জন যদি দু-জনকে বিয়ে করেন সেটা ভিন্ন কথা! না জেনে দুজন দু-জনকে বিয়ে করছেন আর বিয়ের পর বলবেন “আমিতো তোমাকে ভালো ভাবছিলাম ” এটা হবেনা কেননা আল্লাহ্‌ তায়ালা বলেই দিচ্ছেন সূরা আন-নূর এর ০৩ নাম্বার আয়াতে ‘ব্যভিচারী পুরুষ কেবল ব্যভিচারীনী এবং মুশরিকা নারীকেই বিয়ে করে এবং ব্যভিচারিণীকে কেবল ব্যভিচারী এবং মুশরিক পুরুষই বিয়ে করে.. এদেরকে মুমিনদের জন্য হারাম করা হয়েছে. ”

সুতরাং নিঃসন্দেহে যার চরিত্র যেমন সে তেমন চরিত্রের মানুষকেই জীবন সাথী হিসেবে পাবে.. সন্দেহে থাকার কিছুই নেই

ছবিটি ইন্টারনেট হতে সংগৃহীত
তথ্যসুত্রঃ প্রিয় লাইফ