সৌন্দর্য চর্চায় প্রসাধনীর ব্যবহার

প্রসাধনী কমবেশি সবাই ব্যবহার করেন। কিন্তু অনেকেই জানেন না, কোন প্রসাধনীর কেমন ব্যবহার। আজকে জানবো কিভাবে প্রসাধনী ব্যবহার করবেন।

ক্লিনজার:
ক্লিনজার ত্বক পরিষ্কারের জন্য ব্যবহার করা হয়। ক্লিনজার সাধারণত মিল্ক, লোশন ও ক্রিম_এই তিন ধরনের ফরম্যাটে পাওয়া যায়। ক্লিনজার হাতে নিয়ে মুখে ম্যাসাজ করে ধুয়ে বা মুছে ফেলুন।

টোনার:
মুখের অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব দূর করার জন্য টোনার ব্যবহৃত হয়। টোনারের মধ্যে টিস্যু বা সামান্য তুলা ভিজিয়ে মুখে লাগিয়ে নিন। পাঁচ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

ফাউন্ডেশন:
টোনার লাগানোর কিছুক্ষণ পর আঙুল দিয়ে গালে, কপালে ও নাকের পাশে ফোঁটা ফোঁটা লাগিয়ে ভালোভাবে ঘষে মুখে মিশিয়ে দিন। খেয়াল রাখবেন, যেন সারা মুখে একই রকম শেড থাকে।

কনসিলার:
ত্বকে কোনো দাগ থাকলে তা ঢাকার জন্য কনসিলার ব্যবহার করা হয়। কনসিলার কেনার সময় নিজের ত্বকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে কিনুন। আঙুলের মাথায় এক ফোঁটা কনসিলার নিয়ে দাগের ওপর লাগিয়ে ভালোভাবে ম্যাসাজ করে মুখের সঙ্গে মিশিয়ে দিন।

ফেস পাউডার বা কমপ্যাক্ট পাউডার:
ফেস পাউডার বা কমপ্যাক্ট পাউডার মুখের উজ্জ্বলতা বাড়ায়। পাফে পাউডার নিয়ে মুখে আলতো করে লাগান। এরপর পাফ দিয়েই ম্যাসাজ করে মুখের সঙ্গে মিশিয়ে দিন।

আইব্রো পেনসিল:
ভ্রুর আকার শার্প করে এবং উজ্জ্বলতা বাড়ায়। পেনসিল দিয়ে ভ্রুতে ছোট ছোট হালকা দাগ কেটে শেপ তৈরি করুন।

আইশ্যাডো:
আইশ্যাডো ব্রাশের সাহায্যে চোখের পাতার ওপর একটু গাঢ় করে এবং ভ্রুর নিচে হালকা করে লাগাবেন। শ্যাডো যেন চোখের পাতার বেশি বাইরে না ছড়ায়। অবশ্যই সাজ-পোশাকের সঙ্গে যেন মানানসই হয়।

আইলাইনার:
আইলাইনার চোখকে আকর্ষণীয় করে। চোখের পাতার ওপর পাপড়ির কোল ঘেঁষে সরু বা মোটা করে রেখা টানুন। আবার চোখের কোলের বাইরে পর্যন্ত টেনে দিন; এতে বড় লাগবে।

মাশকারা:
মাশকারা চোখের পাপড়িতে লাগানো হয়। চোখের পাপড়ি ঘন ও বড় দেখায়। মাশকারা একবার লাগানোর পর তা শুকালে আরেকবার লাগান, যাতে পাপড়িগুলো একটির সঙ্গে আরেকটি লেগে না যায়।

লিপস্টিক:
লিপস্টিক লাগানোর আগে ঠোঁটে হালকা ভেসেলিন দিন। এতে ঠোঁট সতেজ হবে এবং লিপস্টিক সমানভাবে ঠোঁটে বসবে। গাঢ় রঙের লিপস্টিক লাগালে টিস্যু পেপার দিয়ে হালকা করে ঠোঁটের ওপর চেপে ধরুন; গ্লোসি ভাব কেটে যাবে।

লিপগ্লস:
লিপস্টিকের বিকল্প হিসেবে ঠোঁটের আসল রং ঠিক রাখতে লিপগ্লস ব্যবহার করা হয়। লিপগ্লস খুব তরল, তাই ঝাঁকিয়ে ব্যবহার করুন। লাগানোর সময় খেয়াল করুন, যেন ঠোঁটের চারপাশে না ছড়ায়।

No comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *