স্বাস্থ্যউজ্জ্বল দাগহীন কোমল ত্বক পাবার সবচাইতে সহজ ১ টি পদ্ধতি

ত্বকের যত্নে আমরা কতো কিছুই না করি। বিভিন্ন ধরণের ফেস প্রোডাক্ট, পার্লারে গিয়ে ত্বকের নানা ধরণের ট্রিটমেন্ট সহ আরও নানা কাজ করে থাকেন অনেকেই। শুধুমাত্র পারফেক্ট ত্বক পাওয়ার জন্য প্রায় সকল নারীই এইসব কাজ করে থাকেন।একটি প্রোডাক্ট ত্বকে স্যুট না করলে আরেকটির খোঁজ শুরু করেন। কিন্তু এতো কিছুর পরও কি মনের মতো ত্বক পাচ্ছেন? একেবারেই নয়। এই ধরনের কেমিক্যাল সমৃদ্ধ জিনিসে ত্বকের বরং ক্ষতিই হয়। এরচাইতে প্রাকৃতিক জিনিস ব্যবহার করুন। খুব সহজে এবং বেশ অল্প খরচেই পেতে পারেন স্বাস্থ্যউজ্জ্বল দাগহীন কোমল ত্বক মাত্র ১ টি ফেসপ্যাকে। চলুন তাহলে জেনে নেয়া যাক কীভাবে।

ফেসপ্যাকটির উপকারিতা :

– ত্বকের ব্রণ সমস্যা সমাধান করবে
– ত্বকের নানা ধরণের দাগ দূর করবে
– ত্বকের কালচে ভাব দূর করে ভেতর থেকে ফুটিয়ে তুলবে উজ্জ্বলতা
– ত্বক নরম ও কোমল করবে
– ত্বকের পানিশূন্যতা জাতীয় রুক্ষতা দূর করবে
– ত্বকে বয়সের ছাপ অর্থাৎ রিঙ্কেল জাতীয় সমস্যা দূরে রাখবে।

যা যা লাগবে :

– ১/৪ কাপ পাকা পেঁপে
– ১ টেবিল চামচ মধু
– দেড় টেবিল চামচ লেবুর রস

পদ্ধতি ও ব্যবহারবিধি :

– পেঁপে ছোটো করে কেটে ব্লেন্ডারে দিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন।
– এরপর এতে মধু ও লেবুর রস দিয়ে আরও খানিকক্ষণ ব্লেন্ড করে মসৃণ পেস্টের মতো তৈরি করে ফেলুন।
– প্রথমে ত্বক ভালো করে ধুয়ে মুছে নিন। এরপর এই প্যাকটি ত্বকে ভালো করে লাগান।
– মুখ, ঘাড় ও গলায় ভালো করে লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট রেখে নিন।
– এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ত্বক ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন।
– একেবারে শেষে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ত্বক ভালো করে ধুয়ে মুছে নিন।
– সপ্তাহে মাত্র ১ বার ব্যবহারেই ভালো ফলাফল পাবেন।

যেভাবে কাজ করে এই ফেসপ্যাক :

– মধুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান ত্বকের ব্রণ সমস্যা দূর করে এবং ত্বকের উজ্জ্বলতা ও কোমলতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।
– পেঁপে ত্বককে ভেতর থেকে ময়েসচারাইজ করে ত্বকের পানি শূন্যতা পূরণ করে ত্বককে নরম করে তোলে। পেঁপের অ্যান্টিএইজিং উপাদান ত্বককে বয়সের ছাপ পড়ার হাত থেকে রক্ষা করে।
– লেবুর রসের ব্লিচিং ইফেক্ট ত্বকের নানা ধরণের দাগ ও কালচে ভাব দূর করতে সহায়তা করে।